২ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ১৭ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

২ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ১৭ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজনৈতিক কারণে দীর্ঘদিন ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বন্ধ। বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে হয়তো দু’দেশের মধ্যে সিরিজের কথা কল্পনাও করা যায় না। বিশেষ করে পুলওয়ামা হামলার পর ভারত-পাক সিরিজ কার্যত অকল্পনীয় । কিন্তু, এবার সম্ভবত এই অকল্পনীয় কাণ্ডটিই বাস্তবায়িত হওয়ার মুখে। ভারতের মাটিতে আয়োজিত হতে চলেছে ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। পুরুষদের নয়, মহিলাদের। আইসিসির নিয়মের গ্যাঁড়াকলে পড়েই এই সিরিজ আয়োজনের কথা ভাবছে বোর্ড। ইতিমধ্যেই, সরকারের কাছে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজনের অনুমতিও চাওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিসিসিআইয়ের চাপ, ধোনিকে ‘বলিদান ব্যাজ’ লাগানোর অনুমতি দিল আইসিসি]

বোর্ডের তরফে প্রশাসক প্যানেলের দুই সদস্য বিনোদ রাই, এবং ডায়না এডুলজি একটি চিঠি লিখে সরকারের কাছে ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ এদেশে আয়োজনের অনুমতি চেয়েছেন। ডায়না এডুলজি বলেছন, “আমরা সরকারের কাছে অনুমতি চেয়েছি এই ম্যাচগুলি খেলানোর। দেখা যাক সরকার কী ঠিক করে। তারা যা সিদ্ধান্ত নেবে প্রতিবারের মতো এবারও আমরা সেটাই মেনে চলব।”

[আরও পড়ুন: ধোনির গ্লাভস বিতর্কে আইসিসি-র উপর ক্ষুব্ধ ভারতীয় সমর্থকরা, সরব নেটদুনিয়ায়]

আসলে, যে সিরিজের কথা বলা হচ্ছে, সেটা আইসিসির চ্যাম্পিয়নশিপেরই একটা অংশ। এই টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী আটটি দল প্রত্যেকের হোম এবং অ্যাওয়ে সিরিজে ৩টি করে ম্যাচ নিজেদের মধ্যে খেলে। সব ম্যাচ খেলা হয়ে গেলে প্রথম চারটি দল সরাসরি সুযোগ পায় বিশ্বকাপ খেলার। বাকি দলগুলিকে খেলতে হয় বাছাই পর্বে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এই ম্যাচগুলি না খেললে পয়েন্ট কাটা যাবে ভারতের। গতবছর মাত্র ৩ পয়েন্টের জন্য সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়নি ভারত। মিতালি রাজদের খেলতে হয়েছিল বাছাই পর্বে।তাই ভারতীয় মহিলা দলের সরাসরি বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়ার নিরিখে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলাটা অত্যন্ত জরুরি। সবদিক বিচার বিবেচনা করেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই। এখন সবটাই নির্ভর করছে সরকারের উপর। সেকথাই মনে করিয়ে দিয়েছেন ডায়না এডুলজি। তিনি বলছেন, “বিশ্বকাপে খেলার জন্য এই ম্যাচগুলি খেলা জরুরি। তাছাড়া এটা তো সেই অর্থে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নয়। তাই আশা করি সরকার সবদিক ভেবে দেখবে।” 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং