৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হেড কোচ হিসেবে স্বমহিমায় নিজের পদে বহাল হয়েছেন রবি শাস্ত্রী। কপিল দেবের নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি শাস্ত্রীর উত্তরসূরি হিসেবে শাস্ত্রীকেই বেছে নিয়েছে। এবার সহকারী কোচ, অর্থাৎ ব্যাটিং, বোলিং কোচ এবং ফিল্ডিং কোচ নির্বাচনের পালা। সোমবার সেই প্রক্রিয়া শুরু করল বোর্ড। টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিং এবং বোলিং কোচ বাছার প্রক্রিয়া শুরু করল নির্বাচকমণ্ডলী। বৃহস্পতিবার এই প্রক্রিয়া শেষ হলে জানা যাবে রবি শাস্ত্রীর ডেপুটি কে কে হবেন।

[আরও পড়ুন: স্মিথের মাথায় চোট লাগার জের, বদলে যাচ্ছে হেলমেট পরার নিয়ম!]

কোচ নির্বাচনের পর ব্যাটিং ও বোলিং কোচ নির্বাচনেও নিজেদের মতামত দিতে চেয়েছিল ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটি। কিন্তু, বিসিসিাইয়ের সংবিধান অনুসারে সিএসির সেই অধিকার নেই। সিএসি শুধুমাত্র কোচ নির্বাচনের জন্যই তৈরি। তাই ব্যাটিং ও বোলিং কোচ নির্ধারণের দায়িত্ব বর্তেছে এমএসকে প্রসাদের নেতৃত্বাধীন নির্বাচকমণ্ডলীর উপর। সোমবার থেকেই তাঁর কোচ নির্ণয়ের প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

[আরও পড়ুন: শচীন-ধোনিকে টপকে নয়া রেকর্ড কোহলির, বিশেষ সম্মান পাচ্ছেন ভারত অধিনায়ক]

মূল লড়াইটা টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিং কোচের পদের জন্য। একাধিক হেভিওয়েট ব্যাটিং কোচের পদের জন্য লড়াইয়ে আছেন। এদের মধ্যে সবচেয়ে পরিচিত নাম প্রবীণ আমরে। লড়াইয়ে রয়েছেন প্রাক্তন ওপেনার বিক্রম রাঠৌর, বর্তমান ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার, অমল মজুমদার, হৃষিকেশ কার্নিতকর, প্রাক্তন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জোনাথান ট্রট। বিসিসিআই সূত্রের খবর, সঞ্জয় বাঙ্গারের চাকরি যাওয়াটা কার্যত নিশ্চিত। তাঁর পরিবর্তে কোচ হতে পারেন বিক্রম রাঠৌর। মূল লড়াই আমরে এবং রাঠৌরের মধ্যেই। অন্যদিকে, বোলিং কোচ হিসেবে ভারত অরুণই থেকে যেতে পারেন। তাঁর আমলে ভারতীয় বোলিংয়ের অভাবনীয় উন্নতি হয়েছে। সেই সুফলই পেতে চলেছেন অরুণ। লড়াইয়ে আছেন ডারেন গগ এবং ভেঙ্কটেশ প্রসাদের মতো তারকারা। ফিল্ডিং কোচ হিসেবে আর শ্রীধরের চাকরি থাকছে কিনা তা নিয়েও জল্পনা রয়েছে। কারণ, তাঁকে চ্যালেঞ্জ করছেন কিংবদন্তি প্রোটিয়া ফিল্ডার জন্টি রোডস।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং