BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনা প্রতিষেধক বেরনোর পরই কি ছন্দে ফিরবে ক্রিকেট? মুখ খুললেন সৌরভ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 31, 2020 1:51 pm|    Updated: May 31, 2020 1:51 pm

An Images

ফাইল ফটো

স্টাফ রিপোর্টার: দরকার শুধু একটা প্রতিষধক। সেটা বেরলেই স্বাভাবিক হবে জীবন, জীবনে ফিরবে ক্রিকেট। গোটা বিশ্ব যখন করোনার গ্রাসে বন্দি, তখন এমনই বার্তা দিয়ে রাখলেন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (BCCI) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

শনিবার ‘আনঅ্যাকাডেমি’ অ্যাপে লাইভ ক্লাস করানোর সময় সৌরভ বলেন, “পুরো বিশ্বই আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। কিন্তু জীবন আবার ঠিক তার ছন্দে ফিরবে, দেখবেন। আমাদের হাতে এখন এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ার মতো কোনও ওষুধ নেই। তবে আগামী ছয়-সাত মাসে প্রতিষেধক যখন বেরিয়ে যাবে, সব কিছু আবার আগের মতো হয়ে যাবে।”

[আরও পড়ুন: খেলরত্ন সম্মানে ভূষিত হতে চলেছেন রোহিত! অর্জুনের জন্য মনোনীত এই তিন ক্রিকেটার]

করোনার প্রকোপে শুধু বিশ্বের আমজনতার জীবন নয়, ক্রিকেট-সহ সমস্ত খেলাধুলোই কারাবাসে চলে গিয়েছে। ইংল্যান্ডের মতো কোনও কোনও দেশ আগামী জুলাইকে প্রত্যাবর্তনের মাস ধরে এগোচ্ছে। কিন্তু বিরাট কোহলির ভারত কবে ফিরবে, কবে নামবে মাঠে, ভারতীয় বোর্ডের পক্ষ থেকে এখনও কিছু জানানো হয়নি। “ক্রিকেটও ফিরবে। আগের মতোই হবে। কিছু বদল যে হবে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু বোর্ড আর আইসিসি সর্বাত্মক চেষ্টা করবে ক্রিকেটকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে,” বলে দিয়েছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। সৌরভের মনে হচ্ছে, করোনা প্রতিষেধক একবার বেরিয়ে গেলে এটাও আর পাঁচটা জ্বর কিংবা জন্ডিসের মতো রোগেই পরিণত হবে। ‘‘জ্বর-টর হলে কী হয়? ওষুধ খেয়ে আমরা ঠিক হয়ে যাই। প্রতিষেধক বেরিয়ে গেলে করোনাও একই রকম হয়ে যাবে। ক্রিকেটকে কঠোর শৃঙ্খলার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে এখন। ক্রিকেটারদের ডাক্তারি পরীক্ষা হবে। কিন্তু খেলাটাকে থামাতে পারবে না। করোনাকে হারিয়ে ঠিক বেরিয়ে যাবে খেলাধুলো,” বলে দিয়েছেন ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট।

শুধু করোনার দাপটে কাঁপতে থাকা জনজীবনকে ভরসা জোগানোই নয়, নিজের শৈশব, ফুটবলের প্রতি ভালবাসা নিয়েও অনলাইন ক্লাসে বলেছেন সৌরভ। “ক্লাস নাইন পর্যন্ত চুটিয়ে ফুটবল খেলেছি। ভাল খেলতামও। কিন্তু একবার গরমের ছুটির সময় বাবা বললেন, তুমি কিছুই করছ না। সোজা বাড়ি যাও আর প্র্যাকটিস শুরু করো। উনি সোজা আমাকে ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে ভরতি করে দিলেন।” তাতে অবশ্য আপত্তি করেননি সৌরভ। বরং ভালই লেগেছিল। দাদা আরও জানান, ক্রিকেটার হওয়ার আসল অনুপ্রেরণা তিনি পেয়েছিলেন ’৮৩ সালে কপিল দেব নেতৃত্বাধীন ভারতের বিশ্বজয় দেখে।

[আরও পড়ুন: এবার হকি ইন্ডিয়ায় থাবা মারণ ভাইরাসের, আক্রান্ত দুই কর্মীর জন্য দু’সপ্তাহ বন্ধ অফিস]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement