১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পাকিস্তানে বসবাসকারী হিন্দুদের পাশে দাঁড়ান, যুবি-ভাজ্জির কাছে আরজি দানিশ কানেরিয়ার

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 3, 2020 9:32 pm|    Updated: April 3, 2020 9:32 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানে করোনা মোকাবিলায় কোমর বেঁধে কাজ করছে শাহিদ আফ্রিদির ফাউন্ডেশন। দেশের কঠিন সময়ে গরিব ও দুস্থ পরিবারগুলির পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রাক্তন পাক ক্রিকেট তারকা। আফ্রিদির এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছিলেন দুই ভারতীয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিং এবং হরভজন সিং। এবার পাকিস্তানের সংখ্যালঘু হিন্দুদের পাশে দাঁড়াতে এই দুই তারকাকে আরজি জানালেন দানিশ কানেরিয়া।

টুইটারে প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার দানিশ লেখেন, “যুবরাজ এবং হরভজনকে অনুরোধ করছি তাঁরা যেন পাকিস্তানে বসবাসকারী সংখ্যালঘুদের জন্য একটি ভিডিও তৈরি করেন। এমন কঠিন মুহূর্তে আপনাদের সমর্থন অত্যন্ত জরুরি।” সম্প্রতি আফ্রিদির কাজের প্রশংসা করে ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের রোষানলে পড়তে হয়েছিল যুবি-ভাজ্জিকে। নেটিজেনরা প্রশ্ন তুলেছিলেন, দেশের এমন পরিস্থিতিতে কেন আফ্রিদিপ্রীতি দেখাচ্ছেন তাঁরা? যদিও যোগ্য জবাব দিয়ে নিন্দুকদের মুখ বন্ধ করেছিলেন যুবরাজ। তবে এখনও পর্যন্ত দানিশের টুইটের কোনও জবাব দেননি কোনও তারকা।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ জয়ের স্মৃতি পোস্ট করতেই শাস্ত্রীকে খোঁচা যুবরাজের, কী উত্তর দিলেন ভারতীয় কোচ?]

পাক ক্রিকেটের অন্যতম বিতর্কিত চরিত্র দানিশ কানেরিয়া। তাঁর বিরুদ্ধে রয়েছে ফিক্সিংয়ের অভিযোগ। ২০১২ সালে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে দানিশকে আজীবন নির্বাসিত করে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। তারপর থেকে আইসিসি স্বীকৃত কোনও টুর্নামেন্টে খেলতে পারেন না তিনি।

চলতি বছরের গোড়ার দিকে প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন দানিশ (Danish Kaneria)। শোয়েব আখতারের (Shoaib Akhtar) একটি বক্তব্যকে হাতিয়ার করে তিনি দাবি করেন, হিন্দু হওয়ায় তাঁকে হেনস্তার শিকার হতে হয়েছিল। এমনকী, খাবার টেবিলেও তাঁর সঙ্গে বসে কেউ খাবার খেতে চাইত না। কানেরিয়ার এই অভিযোগে পাক ক্রিকেটে রীতিমতো হুলুস্থুল পড়ে যায়। দানিশের সেই অভিযোগে অবশ্য আমল দেয়নি পিসিবি। কানেরিয়ার সমসাময়িক ক্রিকেটাররাও তাঁর অভিযোগ খারিজ করেছেন। তারপর থেকেই পাকিস্তান ক্রিকেটে একপ্রকার ব্রাত্য হিন্দু ধর্মে বিশ্বাসী দানিশ। ফেব্রুয়ারিতে ব্যাংককের একটি টুর্নামেন্টে পাকিস্তানের কোনও দলে সুযোগ না পাওয়ায়, এক ভারতীয় ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলেন তিনি। যা নিয়ে চরম অসন্তুষ্ট পাক ক্রিকেট মহল। এবার করোনা বিধ্বস্ত পাকিস্তানের সংখ্যালঘুদের জন্য ভারতীয়দের কাছে সাহায্য চাইলেন তিনি। যা বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই করছে ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন: সৌরভ-শচীনদের করোনা সচেতনতা প্রচারের আবেদন প্রধানমন্ত্রীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement