BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চিনা সংস্থার সঙ্গে যোগ রয়েছে আইপিএলের নতুন স্পনসর Dream 11-এরও! দাবি রিপোর্টে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 18, 2020 5:40 pm|    Updated: August 18, 2020 5:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জলে কুমীর তো ডাঙায় বাঘ। বাংলার এই বহু পুরনো প্রবাদ সম্ভবত আইপিএলের সম্পর্কে পুরোপুরি খেটে যায়। কারণ, যে চিনা সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য মরশুম শুরুর মাত্র মাস খানেক আগে নতুন স্পনসর নিতে হল বিসিসিআইকে, সেই চিনা সংস্থাই বোর্ডের পিছু ছাড়ছে না। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, আইপিএলের নতুন স্পনসর Dream 11-এরও নাকি এক চিনা সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ আছে! বছর দুই আগে ওই চিনা সংস্থা Dream 11-এ মোটা অঙ্কের বিনিয়োগ করেছিল। যা রীতিমতো অস্বস্তিতে ফেলতে পারে বিসিসিআইকে।

Dream 11 নামের এই ফ্যান্টাসি গেমিং অ্যাপটি ২০০৮ সালে তৈরি করেন ভবিত শেঠ এবং হর্ষ জৈন। এই মুহূর্তে দেশের সফলতম ফ্যান্টাসি গেমিং অ্যাপ এই ড্রিম ইলেভেন। ইতিমধ্যেই কমবেশি ৮ কোটি মানুষ এই অ্যাপটি ব্যবহার করেন। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাদ্যমের দাবি অনুযায়ী, ২০১৮ সালে চিনের গেমিং সংস্থা টেনসেন্ট (Tencent) এই সংস্থাটিতে ১০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে। তাৎপর্যপূর্ণভাবে সেবছরই ড্রিম ইলেভেনের বার্ষিক আয় একধাক্কায় বেড়ে যায় প্রায় ৩ গুণ। সেবছরই টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং আইসিসির (ICC) সঙ্গে চুক্তি করে সংস্থাটি। বিগ ব্যাশ, প্রো-কাবাডি, এবং আন্তর্জাতিক হকি ফেডারেশনের সঙ্গেও সেবছরই চুক্তি হয়। এবার, ২২২ কোটি টাকার বিনিময়ে এই অনলাইন গেমিং সংস্থাটি আইপিএলের মতো মেগা টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পনসর হয়ে গেল।

[আরও পড়ুন: প্রতীক্ষার অবসান, আইপিএল ১৩-র টাইটেল স্পনসরের নাম ঘোষণা করল বিসিসিআই]

উল্লেখ্য, গত জুনে লাদাখ সীমান্তে ভারত-চিন সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয় পরিস্থিতি। চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে শহিদ হল ২০ জন ভারতীয় সেনা জওয়ান। তারপর থেকেই দেশজুড়ে চিনা পণ্য বয়কটের হিড়িক পড়েছে। ইতিমধ্যেই একগুচ্ছ চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রও। এই পরিস্থিতির মধ্যেও বিসিসিআই প্রথমে জানিয়েছিল, চিনের মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থা VIVO-কেই টাইটেল স্পনসর হিসেবে রেখে দেওয়া হবে। যা নিয়ে শুরু হয় তীব্র বিতর্ক। পরে পরিস্থিতি প্রতিকূল বুঝে নিজেরাই টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় ভিভো। কিন্তু ভিভোর বদলে নতুন যে স্পনসর এল, তাদেরও যোগাযোগ সেই চিনা সংস্থার সঙ্গেই। যা কিনা নতুন করে অস্বস্তিতে ফেলবে ভারতীয় বোর্ডকে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement