১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আতঙ্ক: ভিসা বাতিলের জেরে IPL-এ বিদেশি ক্রিকেটারদের খেলায় অনিশ্চয়তা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: March 12, 2020 2:18 pm|    Updated: March 12, 2020 2:18 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার প্রভাব আইপিএলে পড়বে না বলে জানিয়েছিলেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। কিন্তু প্রেসিডেন্টের আশ্বাসের মাঝেই বড় ধাক্কা আইপিএলের দ্বাদশ সংস্করণ। মহামারি করোনার জেরে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত দেশের নাগরিকদের ট্যুরিস্ট ভিসা বাতিল করেছে কেন্দ্র। যার প্রভাব পড়ল আইপিএলেও। এই নির্দেশিকার জেরে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত কোনও বিদেশি খেলোয়াড়কে পাচ্ছে না ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি। ফলে বিপাকে একাধিক দলের কর্তারা।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, বিদেশি ক্রিকেটাররা ফরেন বিজনেস ভিসা ক্যাটেগরির মধ্যে পড়েন। সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী, আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত তাঁদের ভিসা অনুমোদন পাবে না। বৃহস্পতিবার সরকারি নির্দেশিকা প্রকাশ্যে আসতেই আইপিএলের ভবিষ্যত এখন বিশ বাঁও জলে। আগামী ২৯ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা টুর্নামেন্টের। ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বিদেশি ক্রিকেটাররা দেশে আসতে না পারলে টুর্নামেন্ট জৌলুস হারাবে। একইসঙ্গে ১৫ তারিখের পরও যে সময়সীমা কেন্দ্র বাড়াবে না তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। সুতরাং এই নির্দেশিকায় অথৈ জলে পড়েছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্ণধার ও উদ্যোক্তারা।

[আরও পড়ুন: IPL বন্ধের দাবিতে মামলা সুপ্রিম কোর্টে, জরুরি বৈঠকে টুর্নামেন্টের পরিচালন সমিতি]

এদিকে, আইপিএল বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে (Indian Premier League) একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে আইনজীবী মোহনবাবু আগরওয়াল দাবি করেন, জরুরি ভিত্তিতে এই মামলার শুনানি করতে হবে। আদালত সেই দাবি খারিজ করে দিয়ে জানিয়েছে, হোলির ছুটির পরই এই মামলার শুনানি হবে। তার জন্য একটি তারিখও ঠিক করে দেওয়া হয়েছে। আগামী ১৬ মার্চ এই মামলাটি সুপ্রিম কোর্টের রেগুলার বেঞ্চে তোলা হতে পারে। মামলাকারীর দাবি, এই পরিস্থিতিতে আইপিএল আয়োজন করলে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা কয়েকগুণ বেড়ে যাবে।

একইসঙ্গে, বুধবার রাতেই মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী দাবি করেন, রাজ্য মন্ত্রিসভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয়েছে করোনা (COVID-19) পরিস্থিতিতে নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত, আইপিএল খেলার অনুমতি দেওয়া যাবে না। তা হয় পিছিয়ে দিতে হবে, নয় বাতিল করতে হবে। আর যদি আইপিএলের আয়োজন করতেই হয়, তাহলে তা করতে হবে দর্শকশূন্য ফাঁকা স্টেডিয়ামে।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে করোনা হানার জের, এশিয়া একাদশ বনাম বিশ্ব একাদশের জোড়া ম্যাচ স্থগিত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement