১৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২ জুন ২০২০ 

Advertisement

‘শ্রমিকদের কথা ভাবা উচিত ছিল সরকারের’, লকডাউন নিয়ে কটাক্ষ হরভজনের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 29, 2020 2:24 pm|    Updated: March 29, 2020 2:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউন ঘোষণার হঠকারিতা নিয়ে ঘুরিয়ে কেন্দ্রকে কটাক্ষ করলেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন স্পিনার হরভজন সিং (Harbhajan Singh)। তাঁর মতে এত বড় সিদ্ধান্তের আগে পরিযায়ী শ্রমিকদের কথা ভাবা উচিত ছিল সরকারের। ওদের কাছে মাথা গোঁজার জন্য বাড়ি নেই, রোজগারের জন্য কাজ নেই, খাবার জন্য অন্ন নেই। সরকারের উচিত ছিল ওদের যত্ন নেওয়া এবং আশ্বাস দেওয়া যে, ওদের খাবার আর অর্থের কোনও অভাব হবে না।

delhi crowd

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করতেই দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবন। কাজ খুইয়ে, অস্থায়ী বাসস্থান খুইয়ে দিশেহারা হয়ে উঠেছেন তাঁরা।এদের কেউ থাকেন বিহারের কোনও দেহাতি গ্রামে, কেউ বা ওড়িশার সীমানা লাগোয়া গ্রামে। কেউ বা থাকেন বাংলারই কোনও গ্রামে। কিন্তু লকডাউনের জন্য আটকে ছিলেন দিল্লিতে। শনিবার রাতে দিল্লির আনন্দ বিহার বাসস্ট্যান্ডে দেখা হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে ভিড় জমাতে। করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা উপেক্ষা করেই উত্তরপ্রদেশ সরকারের দেওয়া বাসে বাড়ি ফিরছিলেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: লকডাউন ভেঙে হাজার হাজার শ্রমিকের ভিড়, বিপদঘণ্টা বাজাচ্ছে দিল্লির এই ছবি]

সেই ছবি দেখে উদ্বিগ্ন হরভজন বললেন, “আমার মনে হয় সরকারের উচিত ছিল ওদের কথা ভাবা।ওদের কাছে মাথা গোঁজার জন্য বাড়ি নেই, রোজগারের জন্য কাজ নেই, খাবার জন্য অন্ন নেই। স্বাভাবিকভাবেই এখন ওরা প্রিয়জনদের কাছে ফিরতে চাইছেন। যেভাবে পুরো বিষয়টি চলছে তা খুব বেদনাদায়ক। কেউই ভাবেনি এত তাড়াতাড়ি এত কিছু হয়ে যাবে। সরকারও ওদের কথা ভাবার সময় পায়নি। আমি আশা করব আমরা আরও বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে সিদ্ধান্ত নিতে পারি, যাতে কোনও নাগরিককে এভাবে কষ্ট পেতে না হয়। এখন ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময়, এবং এই দেশের জন্য যতটা করা সম্ভব ততটা করার সময়।”

[আরও পড়ুন: ‘সত্যিকারের হিরো’, পুলিশের উর্দিতে রাস্তায় নেমে করোনা প্রতিরোধ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটারের]

টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন স্পিনার বলছেন, এই পরিস্থিতিতে ক্রিকেটের কথা ভাবতেই পারছেন না তিনি। হরভজনের মতে, আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য সুস্থ এবং স্বাভাবিক ভারত। এই পরিস্থিতিতে আইপিএল নিয়ে ভাবাটা স্বার্থপরতা হবে।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement