২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপ থেকে ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্ক নিয়ে মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের বক্তব্য পেশ করে থাকেন পাক অভিনেত্রী বীনা মালিক। এবারও দুই দেশের সম্পর্ক নিয়ে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিংয়ের সঙ্গে টুইট বিতর্কে জড়ালেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘মমতা ধর্মনিরপেক্ষ হলে নুসরত নয় কেন?’ মৌলবাদীদের পালটা প্রশ্ন তসলিমার]

গত মাসে রাষ্ট্র সংঘের সাধারণ সভায় বক্তব্য রেখেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই একটি টুইট করেন ভাজ্জি। লেখেন, “রাষ্ট্র সংঘের সাধারণ সভায় পরমাণু যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ইমরান খান। খেলার দুনিয়ার একজন ব্যক্তিত্ব হয়ে ইমরান খান যেভাবে ব্লাডবাথ (রক্তস্নান) এবং ফাইট টু দ্য এন্ড (শেষ পর্যন্ত লড়াই) শব্দগুলি ব্যবহার করেছেন, তা দুই দেশের মধ্যে হিংসাত্মক মানসিকতা বাড়িয়ে তোলে। একজন ক্রিকেটার হিসেবে আমি চাইব তিনি শান্তির বার্তা দিন।” নিজের দেশের প্রধানমন্ত্রীর পাশে দাঁড়িয়ে হরভজনের এই টুইটেরই পালটা দিয়েছেন বীনা মালিক। তিনি লেখেন, “প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তাঁর মন্তব্যে শান্তির কথা বলেছিলেন। সেই সঙ্গে তিনি সত্যিটাও তুলে ধরেছেন। কার্ফিউ উঠে গেলে নিশ্চিতভাবে ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি হবে। এবং অত্যন্ত দুঃখজনকভাবে রক্তস্নাতই হবে দেশ। তিনি আতঙ্ক ছড়াননি। বরং তিনি যে ভীত, সেটাই বলার চেষ্টা করেছেন। আপনি কি ইংরাজি বোঝেন না?” পালটা দিতে ছাড়েননি হরভজনও। পাক অভিনেত্রীর টুইটের ভুল বের করে তাঁকে কড়া জবাব দিয়েছেন প্রাক্তন ভারত অফ-স্পিনার।

[আরও পড়ুন: শেহওয়াগের চেয়েও ভাল রোহিতের টেকনিক, মত আখতারের]

কী ভুল? আসলে বীনা তাঁর টুইটে সিওরলি (Surly) বানানটি ভুল লিখেছিলেন। আর সেটিই উল্লেখ করে কটাক্ষের সুরে ভাজ্জি লিখেছেন, “Surly মানে আপনি কী বোঝাতে চেয়েছেন? নাকি Surely লিখতে চেয়েছেন? মাথা ঠান্ডা করুন, আর পরের বার ইংরাজিতে কিছু লিখতে হলে ভাল করে পড়ে লেবেন।” যদিও এই টুইটটির পর আর কোনও উত্তর দিতে সাহস করেননি বীনা। এর আগেও কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে একাধিক তারকার সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়েছেন বীনা। আর প্রতিবারই যোগ্য জবাব দিয়েছেন ভারতীয়রা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং