২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

মা-বাবাকে না জানিয়েই বাগদানের সিদ্ধান্ত নেন, অনলাইন চ্যাট শোয়ে স্বীকার হার্দিকের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 5, 2020 12:26 pm|    Updated: June 5, 2020 12:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিন কয়েক আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি ঘোষণা করে দিয়েছিলেন যে, তাঁর বাগদত্তা নাতাশা স্ট্যানকোভিচ (Natasha Stankovic) অন্তঃসত্ত্বা। এবার তিনি খুলে আম বলে দিলেন যে, নাতাশার সঙ্গে বাগদানের সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় বাবা-মা’কেও জানাননি তিনি। তিনি- ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়া (Hardik Pandya)। বুধবার এক ক্রিকেট ওয়েবসাইটে হর্ষ ভোগলের (Harsha Bhogle) সঙ্গে অনলাইন চ্যাট শোয়ে নিজের ক্রিকেটীয় জীবন নিয়ে প্রচুর কথাবার্তা বলেছিলেন হার্দিক। এদিন আবার নাতাশার সঙ্গে তাঁর প্রেমকাহিনি প্রকাশ্যে এল। হার্দিক বলে দিলেন, প্রথম পরিচয়ের সময় নাতাশা চিনতেনও না তাঁকে। জানতেন না, হার্দিক কী করেন না করেন।

“আমি তো কথা বলে বলে নাতাশার হৃদয় জয় করেছি,” হর্ষকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলে দিয়েছেন ছাব্বিশ বছরের ভারতীয় অলরাউন্ডার। “নাতাশা তো জানতই না আমি কে? কিন্তু পরে ওর সঙ্গে যত মিশেছি, বুঝতে পেরেছি ওকে আমি সত্যিকারের ভালবাসি। বুঝতে পারছিলাম, নাতাশা আমাকে ধীরে ধীরে ভাল মানুষ করে তুলছে। নিজের ক্ষমতার উর্ধ্বে ওঠার চেষ্টা করছি। নিজেকে নিয়ে এখন আর বিশেষ ভাবি না আমি। নিজের ইচ্ছে, অনিচ্ছেকে বিশেষ গুরুত্ব দিই না। আমার কাছে নাতাশা এখন বেশি গুরুত্বপূর্ণ,” বলে দিয়েছেন হার্দিক। কিন্তু কবে মনে হল, এবার নাতাশার সঙ্গে বাগদান পর্ব সেরে ফেলা উচিত? “একটা সময় মনে হল, অনেক তো হল। জীবনে অনেক কিছু পেয়ে গিয়েছি আমি। যে দিন বাগদান করলাম, তার দিন দু’য়েক আগে ক্রুণালকে (ভাই ক্রুণাল পাণ্ডিয়া) বললাম যে, আমি নাতাশার সঙ্গে বাগদানটা সেরে ফেলব ভাবছি। বাবা-মা জানতই না ব্যাপারটা।”

[আরও পড়ুন: বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা বাগদত্তা, সুখবর শোনালেন হার্দিক পাণ্ডিয়া]

আড্ডার ফাঁকে হর্ষ আবার হার্দিককে জিজ্ঞাসা করেন যে, মুম্বইয়ের গলি ক্রিকেটে টিম নামাতে হলে, তাঁর টিমটা কী হবে? ভারতীয় অলরাউন্ডারের উত্তর বেশ চমকপ্রদ। তিনি নিজের গলি ক্রিকেট টিমে ওপেনার হিসেবে রাখেননি ভারতীয় টিমে তাঁর সতীর্থ ও আইপিএল টিম অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে (Rohit Sharma)। বরং হার্দিক বেছে নিয়েছেন ক্রিস গেইলকে (Chris Gayle)। পরের দু’টো নাম যথাক্রমে বিরাট কোহলি (Virat Kohli) ও মহেন্দ্র সিং ধোনি (MS Dhoni)। চারে আন্দ্রে রাসেল (Andre Russel)। পাঁচে হার্দিকের নিজের ভাই ক্রুণাল পান্ডিয়া। এবং ছ’জনের তালিকার শেষ নামটা জসপ্রীত বুমরাহ!

[আরও পড়ুন: ‘ক্ষমা চাও যুবরাজ সিং’, প্রাক্তন অলরাউন্ডারের মন্তব্যে ক্ষোভের আগুন নেটদুনিয়ায়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement