২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাঁরা যতই ক্রিকেটে ঢুকে পড়ুন, ‘কফি উইথ করণ’-এর ছায়া পিছু ছাড়ছে না হার্দিক পাণ্ডিয়া ও কে এল রাহুলের। দু’জনেই এই মুহূর্তে আইপিএলে ব্যস্ত। পাণ্ডিয়া খেলছেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে। আর রাহুল আছেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবে।

এরই মধ্যে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বিসিসিআই ওম্বাডসমান বিচারপতি ডি কে জৈন এই দুই ক্রিকেটারকে তাঁর সামনে হাজির হওয়ার জন্য নোটিস দিয়েছেন। টিভি শো-তে পাণ্ডিয়া ও রাহুল বিতর্কিত মন্তব্য করে বেশ কিছুদিন ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত ছিলেন। পরে তাঁদের নির্বাসন স্থগিত রেখে ক্রিকেটে ফেরানো হয়েছিল। তবে বিষয়টি আবার উঠছে নব নির্বাচিত ওম্বাডসমানের সামনে।

বিচারপতি জৈন সোমবার বলেছেন, তিনি গত সপ্তাহেই দুই ক্রিকেটারকে হাজিরার জন্য নোটিস ধরিয়েছেন। কিন্তু প্রশ্ন হল, ভরা আইপিএলের বাজারে এঁরা সময় বের করবেন কি করে? তবে ১১ এপ্রিল মুম্বইয়ে পাণ্ডিয়া ও রাহুল মুখোমুখি হচ্ছেন। সেই ম্যাচের সময় ব্যাপারটা সেরে নেওয়া হতে পারে। বোর্ডের এক কর্তার কথায়, দু’জনেই আইপিএল খেলছেন। পরপর ম্যাচ বলে সময় বের করা মুশকিল।

[ আরও পড়ুন: লাগাতার হারের জের, আরসিবির নেতৃত্ব ছাড়লেন কোহলি ]

বিচারপতি জৈন শুধু বোর্ডের ওম্বাডসমান-ই নন, তিনি অ্যাড-হক এথিক্স অফিসারও। জৈন বলেছেন, “আমি নীতিগতভাবেই কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ওদের সাথে কথা বলতে চাই।” জানা গিয়েছে, কোনও আইনজীবী নয়, ক্রিকেটারদের হাজির হতে হবে সশরীরে।

বিচারপতি জৈন দায়িত্ব নেওয়ার পর পুরো বিষয়টি তাঁর হাতে ছেড়ে দিয়েছে সিওএ। এদিকে বিচারপতি জৈন আরও জানিয়েছেন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কেও নিয়েও তাঁর কাছে স্বার্থ-সংঘাতের অভিযোগ এসেছে। তিনি সবকিছু খতিয়ে দেখছেন। তারপর সিদ্ধান্ত নেবেন।

[ আরও পড়ুন: আইপিএলে ফের ম্যাচ ফিক্সিং! পন্থের ভিডিও ঘিরে ঘনাল রহস্য ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং