২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দুদার্ন্ত শাকিব-রহিম জুটি, রানের রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ অফ্রিকাকে হারাল বাংলাদেশ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 2, 2019 11:01 pm|    Updated: June 2, 2019 11:26 pm

An Images

বাংলাদেশ: ৩৩০/৬ (শাকিব-৭৫, মুশফিকুর-৭৮)
দক্ষিণ আফ্রিকা: ৩০৯/৮ (মারক্রাম-৪৫, ডুপ্লেসি-৬২, ডুমিনি-৪৫)
২১ রানে জয়ী বাংলাদেশ

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফেভরিট? না, বিশ্বকাপের ফেভরিটদের তালিকায় জায়গা হয়নি তাদের। বরং বিশ্ব ক্রিকেটের শক্তিধর দেশগুলির সামনে তাদের নিয়ে ঠাট্টা তামাশাই বেশি হয়ে থাকে। কিন্তু তারাও যে হিংস্র বাঘ, বিশ্বকাপে নিজেদের অভিযানের শুরুতে সেটাই বুঝিয়ে দিল বাংলাদেশ। ওয়ানডে-তে রেকর্ড রান গড়ে ডুপ্লেসি অ্যান্ড কোংকে হারিয়ে ইংল্যান্ডে জয়ের খাতা খুললেন মোর্তাজারা।

৩৩০। বিশ্বকাপে কেন, ওয়ানডে ক্রিকেটেও এর আগে এত রান করেনি বাংলাদেশ। কিন্তু শাকিব-আল-হাসান ও মুশফিকুর রহিমের ১৪২ রানের রেকর্ড পার্টনারশিপে রবিবার নিজেদের সর্বোচ্চ রান করল ওপার বাংলা। তাও আবার খাতায়-কলমে বেশ শক্তিশালী প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেই যারা ইংল্যান্ডের কাছে মুখ থুবড়ে পড়েছিল। মাঠে নামার আগে অধিনায়ক ডুপ্লেসি বলেছিলেন, সমস্ত ভুল শুধরে নামবেন। কারণ তাঁরা ভালই জানেন, বিশ্বকাপের নয়া এই ফরম্যাটে টানা দুটো হার মানে চাপ অনেকখানি বেড়ে যাওয়া। সুতরাং ধরে নেওয়াই হয়েছিল এদিন দক্ষিণ আফ্রিকা সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাবে। ডেল স্টেইন দলে না থাকলেও রাবাদা, ইমরান তাহির, এনগিডির মতো বোলার থাকলে বিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের কাছে লড়াইটা কঠিন হয়ে ওঠে বইকী। কিন্তু কোনওকিছুকেই এদিন তোয়াক্কা করলেন না শাকিব-মুশফিকুররা। ক্ষুধার্ত বাঘের মতোই একের পর এক চার-ছক্কা হাঁকালেন তাঁরা। আর তাতেই তৈরি হল রেকর্ড রান। যা ছুঁতে পারল না প্রোটিয়াবাহিনী।

[আরও পড়ুন: ‘২০ টাকার পকোড়া আনবেন?’ ম্যাচ চলাকালীনই কটাক্ষ পাক ক্রিকেটারকে]

এদিন ম্যাচ শুরুর আগে তামিম ইকবালের চোট দলকে খানিকটা চিন্তায় রেখেছিল। তবে শেষমেশ তিনি ওপেন করেন। তিনি দ্রুত আউট হয়ে গেলেও ব্যাট হাতে দুরন্ত ৪২ রানের ইনিংস খেলেন আরেক ওপেনার সৌম্য সরকার। ৪৬ রানে অপরাজিত থাকেন মাহমুদুল্লাহ। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বোলিংয়েও এদিন নজর কাড়লেন বাংলাদেশি তারকারা। মুস্তাফিজুর তিনটি এবং এবং সইফউদ্দিন দুটি উইকেট নেন। অর্থাৎ দলগত দক্ষতাতেই এল সাফল্য। প্রসঙ্গত বলা রাখা দরকার, এ দলের অনেকেই প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলছেন। তা সত্ত্বেও তাঁদের ভয়ডরহীন বডি ল্যাঙ্গুয়েজই চাপে ফেলে দিল ডুপ্লেসিদের। বাড়িয়ে দিল চিন্তাও। তাদের পরের প্রতিপক্ষ টিম ইন্ডিয়া। যে ম্যাচ না জিতলে আরও বিপাকে পড়বে দক্ষিণ আফ্রিকা। তাই বিরাট কোহলিদের প্রথম ম্যাচ যে অ্যাসিড টেস্ট হতে চলেছে তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাঠে ঢুকে পড়া এই লাস্যময়ীর পরিচয় জানেন?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement