৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

গৌতম ভট্টাচার্য ও দেবাশিস সেন, নটিংহ্যাম: আবার বৃষ্টি। আবার ভেস্তে গেল একটা ম্যাচ। এবার বরুণ দেবের রোষের শিকার বিরাট কোহলিরা। লাগাতার বৃষ্টির জেরে মাঠে বলই গড়াল না। ফলে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগ করে নিতে হল টিম ইন্ডিয়াকে।

ইংল্যান্ডে মরশুমের এই সময়টা বৃষ্টি হয় জেনেও কেন আইসিসি এখানেই বিশ্বকাপের আয়োজন করল? ইতিমধ্যেই এপ্রশ্ন উঠে গিয়েছে। পাকিস্তান, বাংলাদেশের মতো দলগুলিও বৃষ্টির কবলে পড়ে পয়েন্ট খুইয়েছে। এবার একই হাল হল ভারতের। এদিন নটিংহ্যামে কিউয়িদের বিরুদ্ধে বিরাট কোহলির সামনে ছিল রেকর্ডের হাতছানি। আন্তর্জাতিক ওয়ানডে-তে আর ৫৭ রান করলেই দ্রুততম ১১ হাজার রানের মালিক হয়ে যেতেন তিনি। কিন্তু তেমনটা হল না। এদিন বৃষ্টির জন্য প্রথমে পিছিয়ে যায় টস। তারপর ধারণা করা হয়েছিল, এই বুঝি মেঘ কেটে আকাশ ফর্সা হবে। দেরি করে হলেও শুরু হবে খেলা। কিন্তু কোথায় কী। এই বৃষ্টি থামে কী এই আবার ঝমঝম করে নামে বারিধারা। ভারতীয় অলরাউন্ডার কেদার যাদব আবার মজা করে প্রার্থনা করছিলেন ইংল্যান্ড থেকে বৃষ্টি যেন সরে খড়ার কবলে পড়া মহারাষ্ট্রে চলে যায়। কিন্তু তেমন কিছুই হয়নি।

এদিকে প্রতি এক ঘণ্টায় আম্পায়াররা এসে পিচ পরিদর্শন করেন। এক সময় জানানো হয়, ম্যাচ হবে। তবে ওভার কমে তা দাঁড়ায় ২০-তে। ট্রেন্ট ব্রিজে হাজির হওয়া দর্শকরা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দেখার অপেক্ষা শুরু করেন। তবে সে গুড়েও বালি। ভারতীয় সময় সন্ধে সাড়ে সাতটা নাগাদ জানিয়ে দেওয়া হয়, বৃষ্টির কারণে ম্যাচ বাতিলেরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফলে এক-এক পয়েন্ট ভাগ হয়ে গেল নিউজিল্যান্ড ও ভারতের মধ্যে।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মধ্যেই ঘোষিত টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সূচি, ভারতের প্রথম প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ]

বিশ্বকাপের প্রথম দুটি ম্যাচ জিতে চার পয়েন্ট তুলেছে ভারত। সেখানে নিউজিল্যান্ড তাদের তিনটি ম্যাচেই জয়ী। তাদের পয়েন্ট ছয়। তবে তালিকার শীর্ষে বৃষ্টিই। এমন পরিস্থিতিতে ভারত এই ম্যাচ জিতলে স্বাভাবিকভাবেই অ্যাডভান্টেজ পেত। তাছাড়া, কোহলিদের পরবর্তী প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। সেই ম্যাচের আগে নিজেদের শক্তির পরীক্ষাও হয়ে যেত ভালভাবে। কিন্তু কিছুই হল না। বরং এই ম্যাচ ভেস্তে যাওয়ায় আইসিসির উপর ক্ষোভ বাড়ল ভারতীয় সমর্থক তথা বিসিসিআইয়ের। বিশ্বকাপে কোনও রিজার্ভ ডেও নেই। ফলে ম্যাচ বাতিল হলে পয়েন্ট ভাগ করাই নিয়ম। তাই বিনা যুদ্ধেই ভারতকে পয়েন্ট খোয়াতে হল বলে মন খারাপ গোটা শিবিরের।

[আরও পড়ুন: ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে বাহারি বিজ্ঞাপন, রীতিমতো বিরক্ত সানিয়া মির্জা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং