BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে মিরাকল কার্তিকের, বাংলাদেশ বধ করে চ্যাম্পিয়ন টিম ইন্ডিয়া

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 18, 2018 10:35 pm|    Updated: August 10, 2019 3:22 pm

India beats Bangladesh to clinch the Nidahas T20 Trophy

বাংলাদেশ: ১৬৬/৮ (সাব্বির-৭৭)

ভারত: ১৬৮/৬ (রোহিত-৫৬, কার্তিক-২৯*)

ভারত জয়ী চার উইকেটে

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শেষ বলে দরকার পাঁচ রান। একটা ওভার বাউন্ডারি ছাড়া গতি নেই। টেনশনে দম বন্ধ হওয়ার জোগাড়। ব্যাট হাতে মিরাকলের চেষ্টায় দীনেশ কার্তিক। ভারত কি পারল? বল তখন হাওয়ায়। উপরওয়ালার স্মরণ করছেন দুই দলের সমর্থকরা। বাউন্ডারির বাইরে গিয়ে পড়ল বল। চার উইকেটে জয়ী ভারত। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচের সমাপ্তি হল এভাবেই।

[শেষে দ্রাবিড়ও চিটফান্ডের ফাঁদে! ৪ কোটি টাকা খুইয়ে পুলিশের দ্বারস্থ প্রাক্তন ক্রিকেটার]

ক্যাপ্টেন লিডিং ফ্রম দ্য ফ্রন্ট। টানটান একটা সিরিজের শেষ হল এই বাক্যেই। বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনি, হার্দিক পাণ্ডিয়ারা বিশ্রামে ছিলেন। তাতে কী? দলে একঝাঁক তরুণ তুর্কি তো রয়েছেন। তাই ‘ফেভরিট’ হিসেবেই শ্রীলঙ্কা পাড়ি দিয়েছিলেন রোহিত শর্মা। আর ভারতীয় রিজার্ভ বেঞ্চ যে কোনও অংশে কম নয়, রবিবারের লঙ্কা-ভূমে সেটাই প্রমাণ হয়ে গেল। বাংলাদেশি বাঘ বধ করেই ক্লাইম্যাক্সে ইতি টানল টিম ইন্ডিয়া। ফেভরিট হিসেবেই চ্যাম্পিয়ন রোহিত অ্যান্ড কোং।

সিরিজের শুরুতেই ঘরের দলের কাছে হোঁচট খেয়েছিলেন রোহিতরা। ভারতের হার অবাক হয়েছিল ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদেরও। তবে শ্রীলঙ্কার আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিয়েই দ্রুত ঘুরে দাঁড়ায় দল। ব্যস, তারপর শুধুই বিপক্ষের ত্রাস হয়ে ওঠার কাহিনি রচনা করেছেন রায়না-ধাওয়ান-চাহালরা। কখনও প্রেমদাসার বাইশ গজে পেস ঝড় তুলেছেন শার্দুল ঠাকুর, তো কখনও প্রতিপক্ষের বোলারদের ঘুম কেড়েছে গব্বর সিংয়ের চওড়া ব্যাট। আর তাই ট্রফির ভবিষ্যৎ আন্দাজ করতে খুব একটা সমস্যা হয়নি ক্রিকেটপ্রেমীদের। তবে ঘরের দলকে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দিয়ে সিরিজে নিজেদের ছাপ রেখে গেল বাংলাদেশ। সেই কারণেই যেন নিদাহাস ট্রফির ফাইনালের উত্তেজনা দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছিল। এদিন শুরুতে ধাক্কা খেলেও ৭৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে দলকে খাদ থেকে অনেকটাই টেনে তুলেছিলেন সাব্বির রহমান। কিন্তু চাহাল, উনাদকাটদের দাপটে পার্টনারশিপ জমাট বাঁধল না। তাই ম্যাড়ম্যাড়ে স্কোরবোর্ড সামনে রেখেই বল হাতে নামতে হল তাঁদের। ফল যা হওয়ার তাই হল।

[‘সত্যর জন্য লড়াই’-এ এবার মুখ্যমন্ত্রীকে পাশে চাইলেন হাসিন]

এদিকে, সিরিজের প্রথম তিনটে ম্যাচের পরও রানের খরা কাটছিল না রোহিতের। উপমহাদেশীয় উইকেটে অধিনায়কের ব্যাটে রান না আসা ভাবাচ্ছিল রবি শাস্ত্রীকেও। তবে শেষ দুই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ফ্যানদের সেই হতাশা পুষিয়ে দিলেন ক্যাপ্টেন রোহিত। ফের প্রমাণ হল, তিনি বড় ম্যাচের ব্যাটসম্যান। আর কথায় বলে সব ভাল যার শেষ ভাল। কোহলির অভাব মিটিয়ে রিজার্ভ দলকে সঙ্গী করেই ট্রফি এনে দিলেন মুম্বইকর। তবে এদিন যেন কেকেআর ভক্তদের মুখের হাসি একটু বেশিই চওড়া। তাদের নয়া ক্যাপ্টেন দীনেশ কার্তিক শেষমেশ ভেলকি দেখালেন। শেষ দু’ওভারে তখন বাকি ৩৪ রান। ছক্কা হাঁকিয়ে ভারতের হাত থেকে একপ্রকার বেরিয়ে যাওয়া ম্যাচকে ঘুরিয়ে দিলেন কার্তিক। আর অত্যন্ত চাপের পরিস্থিতিতে শেষ বলে মাথা ঠান্ডা রেখে ছয় মেরে অবাস্তবকেই বাস্তবে পরিণত করলেন তিনি। তাঁর ৮ বলে অপরাজিত ২৯ রান ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে অনেকদিন থেকে যাবে। নিদাহাস ট্রফিতে ভুবনেশ্বর, অশ্বিন, পাণ্ডিয়া, ধোনিদের জন্য বার্তা দিয়ে রাখলেন উনাদকাট, ওয়াশিংটন, মণীশ পাণ্ডেরা। যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে ভারতকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন তাঁরা।

টানটান উত্তেজনার ম্যাচে হারের পর অধিনায়ক সাকিবের কী প্রতিক্রিয়া? দেখুন ভিডিও।

ম্যাচ জিতে কী বলছেন রোহিত? এই লিঙ্কে ক্লিক করে দেখুন ভিডিও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে