২২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ৫ জুন ২০২০ 

Advertisement

রবিবার শুরু টি-২০ সিরিজ, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে নয়া রেকর্ডের সামনে রোহিত

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 14, 2019 4:04 pm|    Updated: September 14, 2019 4:04 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চলতি বছর দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপ থেকে ক্যারিবিয়ান সফর, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে একের পর এক নজির গড়ে চলেছেন। ঠিক ধরেছেন, কথা হচ্ছে রোহিত শর্মার। আর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টিতে আরও একটি রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘আমার স্বার্থের সংঘাত নেই’, এথিক্স কমিটির রায়ের জল্পনা উড়িয়ে দাবি সৌরভের]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্ট দলে প্রথম একাদশে জায়গা হয়নি রোহিত শর্মার। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে আসন্ন টেস্টে ওপেনার হিসেবে দেখা যেতে পারে তাঁকে। কারণ খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য ১৫ জনের দল থেকে বাদ পড়েছেন কে এল রাহুল। তবে টেস্টের আগে আপাতত টিম ইন্ডিয়া ফোকাস করেছে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দিকে। রবিবার ধরমশালায় প্রথম ম্যাচ। যে ম্যাচকে আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি মঞ্চ হিসেবেই দেখছে কোহলি অ্যান্ড কোং। তরুণদের নিয়েই তাই তৈরি হয়েছে দল। এমন পরিস্থিতিতে রোহিত ফের কী ভেলকি দেখান, সেই অপেক্ষাতেই প্রহর গুণছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

[আরও পড়ুন: দিল্লির অনুষ্ঠানে ফের কাছাকাছি বিরাট-অনুষ্কা, ভাইরাল ভালবাসার ভিডিও]

প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে কোন রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে ভারতীয় দলের হিটম্যান? ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম ফরম্যাটে সব্বোর্চ রানের মালিক তিনি। সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরিও রয়েছে তাঁর নামের পাশেই। এখানেই শেষ নয়, টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ছক্কা হাঁকানোর কৃতিত্বও রোহিতের। এবার তাঁর সামনে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে কুড়ি-বিশের ফরম্যাটে সবচেয়ে বেশি রানের অধিকারী হয়ে ওঠার হাতছানি। এই ফরম্যাটে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৪২৪ রান করে তালিকার শীর্ষে রয়েছেন নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপ্তিল। আর ৮৪ রান করলেই কিউয়ি ব্যাটসম্যানকে টপকে যাবেন রোহিত। তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ৩৪০ রান। ঘরের মাঠ নিঃসন্দেহে ভারতীয় দলের কাছে অ্যাডভান্টেজ। টি-টোয়েন্টিতে দেশের মাটিতে প্রোটিয়াদের কাছে কখনও হারেনি টিম ইন্ডিয়া। শেষবার ২০১৫ সালে ২-০-য় সিরিজ জিতেছিলেন ধোনিরা। আর বিশ্বকাপের আগে সমস্ত টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয়কেই পাখির চোখ করেছেন কোহলিরা। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর দক্ষিণ আফ্রিকাকেও হোয়াইটওয়াশ করতে মরিয়া ভারত।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement