৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৬, ৬, ০, ১, ৬, ০, ৬, ০, ৬, আউট। রবিবার ঠিক এমনটাই দেখতে ছিল ব্যাট হাতে উমেশ যাদবের দশ বলের ইনিংসটা। আর তাতেই ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়ে শচীন তেণ্ডুলকরের রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন ভারতীয় পেসার।

হ্যাঁ, অবাক হওয়ার মতোই ঘটনা। রাঁচিতে তৃতীয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেল এন্ডার হিসেবে নেমে সকলকে অবাক করে দিলেন উমেশ। আন্তর্জাতিক টেস্ট কেরিয়ারে এটাই তাঁর সর্বোচ্চ রান। দুনিয়ার তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টে ব্যাট করতে নেমে ব্যক্তিগত ইনিংসের প্রথম দুই বলে পরপর দুটি ছক্কা হাঁকানোর নজির গড়লেন তিনি। এর আগে এই কীর্তির মালিক ছিলেন শচীন তেণ্ডুলকর এবং প্রয়াত ক্যারিবিয়ান তারকা ফফি উইলিয়ামস।

[আরও পড়ুন: আইএসএল অভিযানের শুরুতেই ধাক্কা, কেরলের কাছে পরাস্ত হাবাসের এটিকে]

এখানেই শেষ নয়, টেস্টে দ্রুততম ৩০-এর বেশি রান করার রেকর্ডও গড়েছেন উমেশ। প্রাক্তন কিউয়ি অধিনায়ক স্টিফেন ফ্লেমিংয়ের ১১ বলে অপরাজিত ৩১ রানের পুরনো রেকর্ডও টপকে গেলেন তিনি। ২০০৪ সালে এই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধেই এমন অনবদ্য ব্যাটিং করেছিলেন ফ্লেমিং। টেস্টে দশ বলের ইনিংসে স্ট্রাইক রেটের নিরিখেও সকলকে পিছনে ফেলে দিয়েছেন উমেশ। রবিবার তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ৩১০। টেস্টে যাকে রীতিমতো অঘটন বললে একেবারেই বাড়িয়ে বলা হবে না।

ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি হাত ঘুরিয়েও শুরুতেই সাফল্য পান উমেশ। মাত্র ৪ রানে ওপেনার কুইন্টন ডি কককে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে প্রোটিয়া টপ-অর্ডারকে জোর ধাক্কা দেন ভারতীয় পেসার। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর থেকে প্রত্যাশা অনেকখানি বেড়ে গিয়েছে ভক্তদের। শেষ টেস্টের তৃতীয় দিন উমেশ কোনও মিরাকল ঘটাতে পারেন কি না, সেটাই এখন দেখার।

[আরও পড়ুন: শেখ কামাল কাপে চমকে দিল তরুণ ইয়ং এফসি, লজ্জার হার মোহনবাগানের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং