২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছুটির মেজাজে বিশ্বকাপের ‘প্রস্তুতি’ শুরু ভারতীয় ক্রিকেটারদের। রোহিত শর্মা সস্ত্রীক মালদ্বীপে ছুটি কাটাচ্ছেন। যুজবেন্দ্র চাহাল গোয়ায়। মহেন্দ্র সিং ধোনি সপরিবারে দেশের কোথাও একটা ঘুরছেন। কোহলি তো আছেনই। এমন কেন? জানা গিয়েছে, টিম ম্যানেজমেন্টের নির্দেশ, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটিয়ে নাও। তরতাজা হয়ে বিশ্বকাপের ওয়ার্ম আপ ম্যাচ থেকেই নামতে হবে।

[আরও পড়ুন: অনুশীলন নয়, বিশ্বকাপের আগে ক্রিকেটারদের এই কাজটিই করতে বলল বোর্ড]

এমনও শোনা যাচ্ছে যে, সদ্য আইপিএল শেষ হয়েছে বলে টিমের ইয়ো ইয়ো টেস্টও নাকি হবে না। মানে ১৫ জনের কাউকেই ফিটনেস পরীক্ষায় বসতে হচ্ছে না। কেন? তার জন্যেও ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের উত্তর তৈরি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য ব্যাখ্যা দিয়ে বলেছেন, “এক সপ্তাহও হয়নি আইপিএল শেষ হয়েছে। দেড় মাসের উপর ক্রিকেটাররা চূড়ান্ত পর্যায়ের ক্রিকেট খেলতে ব্যস্ত ছিল। সেই টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার আট-দশ দিনের মধ্যে ইয়ো-ইয়ো টেস্ট নেওয়ার মানে হয় না। তা ছাড়াও পরিপূর্ণ বিশ্রাম নেওয়ার পর এই টেস্ট করা যায়। যেখানে মূলত ক্রিকেটারদের কার্যক্ষমতার পরীক্ষা নেওয়া হয়। লম্বা ছুটির পর বা মরশুমের শুরুতে এটা কার্যকরী। অথচ এক্ষেত্রে আইপিএল ক্রিকেটারদের সব কিছু নিংড়ে নিয়েছে। সেই কথা মাথায় রেখে ইয়ো-ইয়ো টেস্টকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না।”

[আরও পড়ুন: নজরে বিশ্বকাপ, কত দাম ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচের টিকিটের?]

পাশাপাশি অবশ্য ভারতীয় ক্রিকেট দলের ফিটনেস সংক্রান্ত একটা যুগান্তকারী ব্যাপার আমদানি করছে ভারতীয় বোর্ড। কোহলি-ধোনিদের জার্সিতে জুড়ছে নতুন প্রযুক্তি-জিপিএস। বিশ্বের নামি-দামী ফুটবল ক্লাবগুলো এই অত্যাধুনিক ফিটনেস প্রযুক্তি ব্যবহার করে। প্লেয়ার-লোড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম নামক এই প্রযুক্তি এর আগে কোনও ক্রিকেট দল ব্যবহার করেনি। ক্রিকেটে ভারতীয় দলই প্রথম এই প্রযুক্তির ব্যবহার করবে। বিশ্বকাপে ভারতীয় ক্রিকেটারদের জার্সিতে হাই রেজুলেশন চিপ বসানো থাকবে। জিপিএসের সাহায্যে প্লেয়ারদের শারীরিক চালচলন নির্ণয় করা হবে। বোঝা যাবে কোন ক্রিকেটার মাত্রাতিরিক্ত পরিশ্রম করে ফেলেছেন। তখনই তাঁকে বিশ্রাম দেওয়া হবে। যে সংস্থার থেকে এই প্রযুক্তি ব্যবস্থা কিনেছে বিসিসিআই, তারা ব্রাজিল, জার্মানি, ইংল্যান্ড, পর্তুগালের মতো ফুটবল দলগুলোকে এই প্রযুক্তি দিয়ে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং