Advertisement
Advertisement
দানিশ কানেরিয়া

‘সৌরভও খাবার এনেছে আমার জন্য’, হিন্দু বলে দানিশকে হেনস্তার দাবি ওড়ালেন ইনজামাম

পাকিস্তান দলে ধর্মের ভিত্তিতে ভেদাভেদ নেই, দাবি প্রাক্তন অধিনায়কের।

Inzamam-ul-Haq refutes claims of Danish Kaneria and Shoaib Akhtar
Published by: Subhamay Mandal
  • Posted:December 29, 2019 4:58 pm
  • Updated:December 29, 2019 4:58 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিন্দু বলে দলে হেনস্তার শিকার হতে হয়েছে বহুবার। পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়ার এই দাবি উড়িয়ে এবার মুখ খুললেন প্রাক্তন অধিনায়ক ইনজামাম উল হক। বললেন, পাকিস্তানে ধর্মের ভিত্তিতে ভেদাভেদের কোনও জায়গা নেই। একইসঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে সুসম্পর্কের কথাও বলেছেন তিনি। জানিয়েছেন, সৌরভও একসময় তাঁর জন্য খাবার এনেছেন।

দানিশ কানেরিয়া সম্পর্কে প্রথম বোমা ফাটান প্রাক্তন ক্রিকেটার শোয়েব আখতার। সতীর্থ হিন্দু বলে দলে ব্রাত্য ছিলেন বলে একটি পাক চ্যানেলে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস। তারপর সংবাদমাধ্যমের কাছে একথার সত্যতা স্বীকার করেন কানেরিয়া। আর সেইসময় পাশে থাকার জন্য ইনজামাম, শোয়েব ও ইউনিস খানকে ধন্যবাদও জানান পাক ক্রিকেটার। এবার এই ইস্যুতে মুখ খুললেন ইনজামাম। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে তিনি বলেছেন, ‘বিষয়টি জানতে পেরেছি। অভিযোগ উঠেছে, দানিশের সঙ্গে অনেকের সম্পর্ক ভাল ছিল না। অনেকেই তাঁর সঙ্গে খেত না, বাইরে যেত না। কিন্তু আমি কখনও এমন কিছু অনুভব করিনি। আমার ক্যাপ্টেন্সিতেই বেশি খেলেছে দানিশ। কখনও ওঁর সঙ্গে কেউ বাজে ব্যবহার করেছে বলে মনে করি না। এমন ঘটনার কথাও মনে পড়ছে না।’

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিতর্কের মধ্যেই গেরুয়া পোশাকে ভিডিও প্রকাশ কানেরিয়ার, দিলেন ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি]

এই প্রসঙ্গে ইউসুফ ইওহানার কথা উল্লেখে করে তিনি বলেছেন, ‘ধর্মান্তরিত হওয়ার আগেও কখনও ইউসুফের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হয়নি। ধর্মের নামে দলে ভেদাভেদ হয়নি কখনও। পাকিস্তানিদের মন ছোট নয়।’ তিনি ২০০৪ সালে ভারতের সফর নিয়ে বলেছেন, ‘১৫ বছর পর পাকিস্তানে খেলতে এসেছিল ওঁরা। তখন স্বাগত জানিয়েছিলাম ভারতকে। খাওয়াদাওয়া, কেনাকেটা, ঘুরতে যাওয়া কোনওকিছুর জন্যই ওঁদের থেকে টাকা নিইনি। একবছর পর যখন ভারতে গিয়েছিলাম তখনও একইরকম আন্তরিকতা ও ভালবাসা পেয়েছিলাম। ভারতীয়রা নিজেদের ঘরের দরজা খুলে দিয়ে অতিথি হিসাবে থাকার জন্য ডেকেছিল। রান্না করে খাইয়েছিল। কেনাকাটার টাকাও নেয়নি। দুই দেশের মানুষের মধ্যে অনেক ভালবাসা রয়েছে। আমাদের মন এত ছোট না।’

Advertisement

সৌরভের প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘২০০৫ সালে ভারত সফরের সময় একটা বিজ্ঞাপনের ফটোশুটে গিয়েছিলাম। ভারতের তরফে ছিল সৌরভ। ওঁ একটা রেস্তরাঁ খুলেছিল। উদ্বোধনে আমি আরও শচীন গিয়েছিলাম। রেস্তরাঁ থেকে আমার জন্য খাবার আনত সৌরভ। শারজায় খেলার সময় আমরা ভারতীয়দের সঙ্গে একই হোটেলে থাকতাম। দলের ক্রিকেটারদের দেখতাম একসঙ্গে বসে মজা করতে, খেতে। দুই দলেই কখনও ধর্মের ভিত্তিতে কোনও ভেদাভেদ দেখিনি।’ এসব বক্তব্যই তিনি দানিশ বিতর্কের প্রেক্ষিতে বলেছেন নিজের ইউটিউব চ্যানেল। ধর্মের ভিত্তিতে ভেদাভেদ যে পাকিস্তান দলে কোনওদিন ছিল না তা নিজের বক্তব্যে তুলে ধরেছেন ইনজামাম।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ