BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চারবারের চ্যাম্পিয়নকে হারাতে মরিয়া দিল্লি, তবে এই চার কারণে এগিয়ে মুম্বই ইন্সিয়ান্সই

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 5, 2020 2:24 pm|    Updated: November 5, 2020 2:24 pm

An Images

সৌরাশিস লাহিড়ী: প্রতিটা ক্রিকেটপ্রেমীর মতো আমিও উৎসুক বৃহস্পতিবারের প্রথম কোয়ালিফায়ার নিয়ে। নিঃসন্দেহে বলা যায় এবারের আইপিএলের দুই সেরা দলই মুখোমুখি হবে। গোটা লিগ পর্বে দিল্লি ক্যাপিটালস (Delhi Calpitals) ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (Mumbai Indians) নিখুঁত টিমগেম উপহার দিয়েছে। যোগ্য দল হিসাবেই মুম্বই ও দিল্লি প্রথম দুইয়ে শেষ করেছে।

আইপিএল (IPL) প্লে-অফ মানেই আগেভাগে কোনও ভবিষ্যদ্বাণী করা যায় না। দলের ফর্ম দিয়েও কিছু যায় আসে না। দিনের দিন যে দল পারফর্ম করবে তারাই জয় ছিনিয়ে নেবে। কিন্তু আমাকে যদি জিজ্ঞেস করা হয় কোন দল একটু হলেও আজ এগিয়ে থাকবে তাহলে নিঃসন্দেহে বলব মুম্বই। মূলত চারটে কারণের জন্যই আজ মুম্বইয়ের পাশে ফেভারিটের তকমা বসিয়ে দিলাম।

[আরও পড়ুন: ‌দুবাইয়ে মহিলাদের টি–টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেই হরমনপ্রীতদের হারালেন মিতালি]

বুম বুম বুমরাহ: সাদা বলের ক্রিকেটে বিশ্বের অন্যতম সেরা পেসার। টুর্নামেন্ট শুরুর দিকে ছন্দে ছিল না বুমরাহ (Jasprit Bumrah)। কিন্তু লিগ পর্বের শেষ ল্যাপে এসে মুম্বইয়ের সেরা পারফর্মার ও-ই। ডেথ ওভারে প্রতিটা ব্যাটসম্যানকে নাস্তানাবুদ করেছে। বুমরাহ হল কমপ্লিট বোলার। ইয়র্কার হোক কী স্লোয়ার- প্রতিটা ডেলিভারি নিখুঁতভাবে করতে পারে।

ট্রেন্ট দ্য মাস্টার: প্রথম পাওয়ার প্লে-তে নিয়মিত উইকেট তুলে দলকে দারুণ স্টার্ট দিচ্ছে ট্রেন্ট বোল্ট (Trent Bolt)। কয়েকটা ম্যাচে তো বোল্ট হয়ে উঠেছিল ‘আনপ্লেয়েবল’। বোল্ট বরাবরই ধারাবাহিক। সঠিক লাইন আর লেংথে বলটা করতে পারে। তার উপর বলটা মুভ করাতেও পারে। আবার খুব ইকোনমিকাল বোলার। দিল্লির বিরুদ্ধে বোল্ট তাই গেমচেঞ্জার হয়ে উঠলে আমি অবাক হব না।

ব্যাটিং জায়ান্টস: আমি বরাবর বলেছি মুম্বইয়ের এমন সাফল্যের কৃতিত্ব দলের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপের। রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি’ককের মতো দুই বিশ্বমানের ওপেনার আছে। আবার তিনে কে নামে? সূর্যকুমার যাদব। প্রতিটা ম্যাচেই সূর্যকুমার অনবদ্য ব্যাটিং করেছে। মিডল অর্ডারে আছে আবার ঈশাণ কিষান, হার্দিক পাণ্ডিয়া, কায়রন পোলার্ডের মতো ব্যাটসম্যান। এর থেকেই তো পরিষ্কার মুম্বই ব্যাটিং লাইন আপে অনেক ম্যাচ উইনার আছে। জাস্ট ভাবুন। রোহিত কিন্তু এবার নিজের সেরা ফর্মে ছিল না। তার উপর মাঝে কয়েকটা ম্যাচ চোটের জন্য বাইরে ছিল মুম্বই অধিনায়ক। কিন্তু তাতেও মুম্বইয়ের কোনও সমস্যা হয়নি। রান তাড়া করেছে সফলভাবে। আবার প্রথমে ব্যাট করে গড়ে তুলেছে ১৭০ বা ১৮০ প্লাস টোটাল।

[আরও পড়ুন: কলকাতায় খেলা নেই, গোয়া থেকেই বাগান সমর্থকদের কাছে বিশেষ ‘‌উপহার’‌ চাইলেন হাবাস]

অভিজ্ঞতা: আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। চারবারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন। বহুবার আইপিএল প্লে-অফে উঠেছে। রোহিত শর্মা, কায়রন পোলার্ড, হার্দিক পাণ্ডিয়া, জসপ্রীত বুমরা, ক্রুণাল পাণ্ডিয়া- মুম্বইয়ের এই কোর গ্রুপ ভাল মতো জানে প্লে-অফের চাপ কীভাবে সামলাতে হয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement