BREAKING NEWS

২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাহুল-হরপ্রীতের দুরন্ত পারফরম্যান্স, প্রীতির পাঞ্জাবের কাছে হার বিরাটদের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: April 30, 2021 11:13 pm|    Updated: April 30, 2021 11:27 pm

An Images

পাঞ্জাব কিংস: ২০ ওভারে ১৭৯/৫ (রাহুল ৯১*, গেইল ৪৬, জেমিসন ২/৩২)
রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর: ২০ ওভারে ১৪৫/৮ (বিরাট ৩৫, হর্ষল ৩১, হরপ্রীত ৩/১৯)
পাঞ্জাব কিংস ৩৪ রানে জয়ী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটা দল পাঁচটি ম্যাচ জিতে লিগ টেবিলের প্রথম চারে। অপরজন ছটি ম্যাচের মধ্যে কেবল দুটিতে জয় পেয়ে রীতিমতো ধুঁকছিল। স্বভাবতই প্রীতির পাঞ্জাব (Punjab Kings) নয়, খাতায়-কলমে বিচার করলে এগিয়ে ছিল বিরাট কোহলির RCB-ই। কিন্তু পাঞ্জাব অধিনায়ক কে এল রাহুলের (KL Rahul) দুরন্ত ব্যাটিং এবং হরপ্রীত ব্রারের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের জেরে শুক্রবার উলটপূরাণের সাক্ষী থাকল মোতেরার নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়াম (Narendra Modi Stadium)। প্রীতির দলের দেওয়া ১৮০ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে ব্যাটিং ব্যর্থতায় ৩৪ রানে ম্যাচ হারলেন বিরাট কোহলিরা (Virat Kohli)।

এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন আরসিবি অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তাঁর এই সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণও করেন জেমিসন। শুরুতেই তুলে নেন পাঞ্জাবের ওপেনার প্রভসিমরনের (৭) উইকেট। কিন্তু এরপরই ক্যারিবিয়ান তারকা ক্রিস গেইলের সঙ্গে জুটি বাঁধেন পাঞ্জাব অধিনায়ক কে এল রাহুল। দুজনে মিলে দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে যোগ করেন ৮০ রান। এর মধ্যে ‘ইউনিভার্সাল বস’-এর সংগ্রহ মাত্র ২৪ বলে ৪৬ রান। মারেন ৬টি চার এবং ২টি ছয়। যদিও গেইল আউট হতেই পরপর বেশ কয়েকটি উইকেট হারায় প্রীতির পাঞ্জাব। দ্রুত ফিরে যান নিকোলাস পুরান (০), দীপক হুডা (৫) এবং শাহরুখ খান (০)। তবে শেষদিকে হরপ্রীত ব্রার এবং রাহলের দুরন্ত ব্যাটিং পাঞ্জাবের রান ১৮০ রানের কাছাকাছি নিয়ে যান। নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ১৭৯ রানে থামে তাঁদের ইনিংস। হরপ্রীত যেখানে ১৭ বলে ২৫ রান করে ক্রিজে ছিলেন, সেখানে অপরাজিত ৯১ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন কে এল রাহুল। তাও মাত্র ৫৭ বলে। মারেন ৭টি চার এবং ৫টি ছয়। পাশাপাশি শিখর ধাওয়ানকে পিছনে ফেলে অরেঞ্জ ক্যাপও নিজের দখলে নিয়ে নেন।

[আরও পড়ুন: নাইটদের মধ্যে আগ্রাসী মনোভাবের অভাবে ক্ষুব্ধ ম্যাকালাম, দলে ঘটবে বড়সড় বদল]

১৮০ রানের ‘বিরাট’ লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে আরসিবি। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন দেবদূত পাড়িক্কল (৭), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (০) এবং এবি ডি’ভিলিয়ার্সের (৩) মতো ব্যাটসম্যানরা। কেবল বিরাট কোহলি (৩৫) এবং রজত পতিদার (৩১) কিছুটা রান পান। শেষদিকে হর্ষল প্যাটেল (মাত্র ১৩ বলে ৩১) কিছুটা চেষ্টা করলেও তা দলের জয়ের জন্য নির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছনোর জন্য যথেষ্ট ছিল না। শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেটে ১৪৫ রানেই থেমে যায় বিরাটদের ইনিংস। ব্যাট হাতে ঝোড়ো ২৫ রান করার পাশাপাশি বল হাতেও দলকে মোক্ষম তিনটি উইকেট তুলে নেন পাঞ্জাবের হরপ্রীত। আউট করেন বিরাট, ম্যাক্সওয়েল এবং এবিডির মতো হেভিওয়েট ব্যাটসম্যানদের। যাঁরা কিনা আবার আরসিবি ব্যাটিং লাইনআপের মূল স্তম্ভও বলা যায়। এছাড়া দুটি উইকেট পান রবি বিষ্ণোইও। তবে ম্যাচ জিতলেও শেষ লগ্নে এসে দলের পেসার রিলি মেয়ারডিথের চোট কিছুটা হলেও চিন্তায় রাখবে পাঞ্জাব শিবিরকে।

[আরও পড়ুন: বাড়ছে করোনার প্রকোপ, আর্থিক সাহায্যে এগিয়ে এলেন ধাওয়ান-সহ একাধিক ক্রিকেটার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement