BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

এবার ইডেন গার্ডেন্সে তৈরি হবে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার, CAB-কে প্রস্তাব পুলিশের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 11, 2020 10:50 am|    Updated: July 11, 2020 10:50 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমশ উদ্বেগজনক হচ্ছে শহর কলকাতার পরিস্থিতি। প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। ভিড় বাড়ছে শহরের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে। তাই একপ্রকার বাধ্য হয়ে এবার কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরির জন্য ইডেন গার্ডেন্সের পরিকাঠামো ব্যবহারের অনুমতি চাইল কলকাতা পুলিশ। পূর্ব ঘোষণা মতো সিএবিও পুলিশের প্রস্তাবে রাজি হয়েছে বলে সূত্রের খবর। ফলে শীঘ্রই ইডেন গার্ডেন্সের গ্যালারির একাধিক ব্লকের নিচে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

শুক্রবার লালবাজারে সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া শহরে পদস্থ পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। বৈঠকের পর পুলিশ আধিকারিকরা সিএবি প্রেসিডেন্টকে সঙ্গে নিয়েই ইডেন গার্ডেন্স পরিদর্শন করেন। সঙ্গে ছিলেন বাংলার ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার (Cricket Association of Bengal) সচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ও। ইডেন গার্ডেন্সের (Eden Gardens) গ্যালারির নিচের অংশে পুলিসকর্মীদের জন্য জরুরি ভিত্তিতে কোয়ারেন্টিন সেন্টার তৈরির প্রস্তাব CAB-কে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। কলকাতার পুলিশ কমিশনারের দপ্তরের তরফ থেকে সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়াকে একটি চিঠি লেখা হয়েছে। যাতে ইডেনের গ্যালারি ব্যবহারের পাশাপাশি স্টেডিয়ামে অস্থায়ী রান্নার ব্যবস্থা করারও অনুমতি চাওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রতিশ্রুতি দিয়েও কথা রাখেননি শাহরুখ, কেকেআর মালিকের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক সৌরভ!]

প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে, ইডেনের E ব্লক থেকে H ব্লক পর্যন্ত গ্যালারির নিচে পুলিশকর্মীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি হবে। কিন্তু B, C, D, K এবং L ব্লক কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য দেওয়া হবে না। কারণ, ওই গ্যালারিগুলির নিচেই ইডেনের মাঠকর্মীদের থাকার ব্যবস্থা করেছে সিএবি। উল্লেখ্য, বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় অনেক আগেই ঘোষণা করেছিলেন, রাজ্য সরকার চাইলে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য ইডেন গার্ডেন্সের পরিকাঠামো ব্যবহার করতে পারে। সৌরভ বলেন,“সরকার যদি চায় তাহলে আমরা ইডেনের সব সুযোগ সুবিধা তাঁদের হাতে তুলে দিতে পারি। এতে অসুবিধার কিছু নেই। এই মুহূর্তে যেটা দরকার, সেটাই আমরা করব।” বোর্ড প্রেসিডেন্টার সেই ঘোষণামতোই সরকারের সাহায্যে এগিয়ে আসছে সিএবি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement