৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ভারত: ২৭৩-৩ (মায়াঙ্ক ১০৮, বিরাট ৬৩)

দক্ষিণ আফ্রিকা:

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথম টেস্টের মতো দ্বিতীয় টেস্টেও প্রথম ইনিংসে বড় রানের লক্ষ্যে এগোচ্ছে ভারত। বিশাখাপত্তনমের মতো পুণেতেও দাপট দেখাচ্ছেন টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটসম্যানরা। দিনের শেষে ভারতের স্কোর ৩ উইকেটে ২৭৩ রান। দুর্দান্ত শতরান করেছেন আগের ম্যাচের ডাবল সেঞ্চুরির মালিক মায়াঙ্ক আগরওয়াল। রান পেয়েছেন পূজারা এবং কোহলিও। প্রথম দিনের শেষেই টেস্ট ম্যাচের ভাগ্য কোনদিকে যেতে চলেছে, তার ইঙ্গিত দিয়ে দিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।

[আরও পড়ুন: দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম দিনই ফের সেঞ্চুরি, শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসছেন ময়ঙ্ক]

বিশাখাপত্তনমের মতো পুণের পিচ মোটেই ব্যাটিং সহায়ক ছিল না। বিশেষ করে শুরুর দিকে নতুন বলে বেশ ভাল সুইং পাচ্ছিলেন প্রোটিয়া বোলাররা। ফিল্যান্ডার এবং রাবাডার গতি ও সুইং সমস্যায় ফেলেছে টিম ইন্ডিয়াকে। শুরুটা ভাল হয়নি ভারতের। ব্যক্তিগত ১৪ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আগের ম্যাচে জোড়া সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মা। এরপরই অবশ্য ইনিংসের হাল ধরেন মায়াঙ্ক এবং পূজারা। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে পূজারা করেন ৫৮ রান। অন্যদিকে, দেশের মাটিতে দ্বিতীয় টেস্টেও সেঞ্চুরি করেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। সেই সঙ্গে দ্বিতীয় ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পর পর দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করলেন মায়াঙ্ক। এর আগে এই কীর্তি ছিল একমাত্র বীরেন্দ্র শেহওয়াগের। সেঞ্চুরির পর অবশ্য বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি টিম ইন্ডিয়ার ওপেনার। ১০৮ রানে আউট হন তিনি।  মায়াঙ্কের উইকেটের পর ইনিংসের হাল ধরেন অধিনায়ক কোহলি। দুর্দান্ত অর্ধশতরান করেন তিনি। দিনের শেষে কোহলি অপারিজত আছেন ৬৩ রানে। রাহানে ১৮ রানে অপরাজিত। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে তিনটি উইকেটই পান রাবাডা।

[আরও পড়ুন: ওয়ানডে ক্রিকেটে ইতিহাস মিতালির, দক্ষিণ আফ্রিকাকে হেলায় হারাল ভারত]

দেশের মাটিতে টেস্ট খেলতে নেমে ভ্যাইজ্যাগেই প্রথম সেঞ্চুরি ঝুলিতে ভরেছিলেন মায়াঙ্ক। ভারতীয় ব্যাটসম্যানের এমন ফর্ম নিঃসন্দেহে অনেকখানি অক্সিজেন দিয়েছে দলকে। কারণ ওপেনিং স্লট নিয়ে যে টালমাটাল পরিস্থিতি ছিল, তা মায়াঙ্ক ও রোহিত শর্মার হাত ধরে অনেকটাই দূর হয়েছে। ভ্যাইজ্যাগে দুই ইনিংসে দুটি সেঞ্চুরি করেছিলেন রোহিত। এদিন রোহিত ব্যর্থ হন। তবে পুণেতে নেমে ফের স্বমহিমায় ধরা দিলেন তরুণ। দেশের জার্সি গায়ে পরপর শতরানের নজির গড়লেন তিনি। এই স্টেডিয়ামেই এর আগে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে কর্ণাটকের হয়ে মহারাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ৩০৪ রানে অপরাজিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং