৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভুবনেশ্বর কুমার ফিট থাকলে হয়তো তাঁর খেলাই হত না। কিন্তু, ভুবির চোট শাপে বর হয়েছে শামির জন্য। এবারের বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। এবং খালি সুযোগ পেয়েছেন বলা ভুল, রীতিমতো চমকে দিয়েছেন নিজের পারফরম্যান্সে। ইতিহাসের দশম বোলার হিসেবে বিশ্বকাপে হ্যাটট্রিকের মালিক হয়েছেন বাংলার পেসার। চেতন শর্মার পর তিনিই দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। কিন্তু, এহেন পারফরম্যান্সের কৃতিত্ব শামি কাকে দিচ্ছেন জানেন? বলতে পারলে অবশ্য আপনি কোনও পুরস্কার পাবেন না। কারণ, উত্তরটা খুবই সহজ। আর পাঁচটা ভারতীয় বোলারকে যিনি পরামর্শ দেন, যাঁর পরামর্শে ভারতীয় স্পিনাররা এত বিপজ্জনক হয়ে ওঠেন, সেই মহেন্দ্র সিং ধোনিই শামিকে পরামর্শ দিয়েছিলেন। মাহি ভাইয়ের কথা শুনে বল করেই হ্যাটট্রিকের মালিক হয়েছেন। সেকথা প্রকাশ্যে স্বীকারও করে নিলেন ভারতীয় পেসার।

[আরও পড়ুন: আফগানিস্তান ম্যাচ জিতেও বড়সড় শাস্তি পেলেন কোহলি]

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে শেষ ওভারে শামির হাতে ছিল ১৬ রান। প্রথম বলেই বাউন্ডারি হাঁকিয়েছিলেন অভিজ্ঞ আফগান ব্যাটসম্যান মহম্মদ নবি। তারপরই দেখা যায় ধোনি উইকেটের পিছন থেকে ছুটে এসে শামির কানে কানে কিছু একটা বলে গেলেন। নবি আউট হওয়ার পর ফের শামিকে পরামর্শ দেন ধোনি। তারপরই দেখা গেল মিরাক্যাল। পরপর তিন বলে তিন উইকেট। ম্যাচের পরই শামি ফাঁস করলেন, ধোনি কী বলেছিলেন।

[আরও পড়ুন: মান বাঁচাল শামির হ্যাটট্রিক, রূদ্ধশ্বাস ম্যাচে আফগান বধ ভারতের]

বাংলার পেসার বলছেন, “পরিকল্পনাটা খুব সহজ ছিল। ইয়র্কার বল করা। মাহিভাইও তেমনই পরামর্শ দিয়েছিল। বলেছিল, কোনও পরিবর্তন করার দরকার নেই। তোমার কাছে সুযোগ রয়েছে হ্যাটট্রিক করার। এটা খুব বিরল সুযোগ। তাই আমাকে যা বলা হয়েছিল তাই করেছি।” শামি বলেন, “প্রথম একাদশে সুযোগ পাওয়াটাই আমার জন্য ভাগ্যের ব্যপার। আর হ্যাটট্রিকের কথা যদি বলা হয়, তাহলে এটা বিশ্বকাপে বিরল। তাই আমি খুশি।” এদিকে, ম্যাচের পর বুমরাহর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে শামি বলেন, “আমরা দীর্ঘদিন একসঙ্গে খেলতে চাই। এবং একসঙ্গে নতুন নতুন রেকর্ড করতে চাই।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং