১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চাইলেও এবারের মতো আর আইপিএলে ফেরা হবে না রায়নার! ইঙ্গিত বিসিসিআইয়ের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 6, 2020 8:44 pm|    Updated: September 8, 2020 2:21 pm

No comeback for Suresh Raina? BCCI official hints he might not be allowed to play IPL 2020 now

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ করোনা আবহেই শুরু হতে চলেছে আইপিএল ২০২০। রবিবার ঘোষিত হল সূচিও। প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে মহেন্দ্র সিং ধোনির (Mahendra Singh Dhoni) চেন্নাই এবং রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (Mumbai Indians)। কিন্তু এই ম্যাচে থাকবেন না চেন্নাই সুপার কিংসের দুই স্তম্ভ সুরেশ রায়না এবং হরভজন সিং। দু’‌জনেই ব্যক্তিগত কারণে আইপিএল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। তবে এবার জল্পনা ফের একবার দুবাইয়ে (Dubai) দলের সঙ্গে যোগ দিতে চান রায়না। হয়তো প্রথমদিকে না হলেও পরেরদিকে ফের তিনি আমিরশাহী উড়ে যেতে পারেন। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে বোর্ডের সিদ্ধান্তের উপর। কারণ সেক্ষেত্রে রায়নার বিসিসিআইয়ের ছাড়পত্রের প্র‌য়োজন পড়বে। এমনটাই জানা গিয়েছে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে।

[আরও পড়ুন:‌ গতবারের তিক্ততা এখনও বর্তমান! কার্তিক-রাসেল দ্বন্দ্ব KKR শিবিরে প্রভাব ফেলবে না তো?]

বোর্ডের এক আধিকারিককে উদ্ধৃত করে তাতে বলা হয়েছে, বোর্ডকে সঠিক কারণ না জানিয়েই রায়না দেশে ফিরেছেন। তাই পুনরায় চেন্নাই দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার আগে বিসিসিআইকে আগে সঠিক কারণ জানাতে হবে। করোনার কারণে পরিবারের জন্য দেশে ফিরলে সেটা রায়নার ব্যক্তিগত ব্যাপার। অধিনায়ক ধোনির সঙ্গে কোনও ঝামেলা বা হোটেল রুম সংক্রান্ত কোনও ব্যাপার হলে সেটা সিএসকের (Chennai Super Kings) অভ্যন্তরীণ বিষয়। কিন্তু মানসিক অবসাদের কারণে যদি রায়না এরকম সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে?‌ এরকম ক্ষেত্রে আমরা সঠিক কারণ না জেনে কখনই অনুমতি দিতে পারি না। আর তাই রায়নাকে প্রথমে বিসিসিআইয়ের (BCCI) কাছ থেকেই ছাড়পত্র নিতে হবে। কেন তিনি দেশে ফিরেছিলেন?‌ সেই বিষয়ে জবাব দিতে হবে।

[আরও পড়ুন:‌ করোনার জেরে পুরোপুরি বাতিল হয়ে যেতে পারে ঘরোয়া ক্রিকেট মরশুম, আশঙ্কায় বোর্ডও]

এদিকে, রায়নার পর IPL থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন হরভজন সিং (Harbhajan Singh)। তিনিও কেবল ব্যক্তিগত কারণের কথা বললেও, তাঁর এক বন্ধুর দাবি, আসলে পরিবারের কথা চিন্তা করেই ভাজ্জির এই সিদ্ধান্ত। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‌‘চেন্নাই শিবিরে করোনার হানার জন্য ভয় পাননি হরভজন। কিন্তু বাড়িতে স্তঈ এবং ছোট সন্তান রয়েছে। এক্ষেত্রে যে কারোর খেলার প্রতি মনসংযোগ নষ্ট হবে এবং সে খেলায় মন দিতে পারবেই না সে। তাতে পারিশ্রমিক ২ কোটি হোক বা ২০ কোটি, কিস্যু যায় আসে না।‌’‌’‌

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে