১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিশ বাঁও জলে কোহলিদের বিশ্বকাপ পারফরম্যান্স রিভিউ!

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: July 24, 2019 3:09 pm|    Updated: July 25, 2019 2:42 pm

No performance review meet for Team India, says BCCI

স্টাফ রিপোর্টার: বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল হার নিয়ে রিভিউ বৈঠক? সম্ভাবনা প্রায় নেই। মিডিয়ায় প্রকাশিত ভারতীয় টিমে অর্ন্তদ্বন্দ্ব নিয়ে পর্যালোচনা? কোনও বৈঠক? সে সব হওয়ারও সম্ভাবনা না। সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসক প্যানেল (সিওএ) তাতে ঢুকতেই আগ্রহী নয়।

ভারতীয় বোর্ড পদাধিকারীরা ইতিমধ্যেই নিষ্ক্রিয়। বোর্ড সচিব অমিতাভ চৌধুরি, কোষাধক্ষ্য অনিরুদ্ধ চৌধুরি- কারওরই কোনও ক্ষমতা আর নেই। সিওএ সমস্ত বোর্ড পদাধিকারীদের ক্ষমতাই কেড়েকুড়ে নিয়েছে। মুশকিল হল সিওএ- তারাও কিছু করতে চাইছে না। রিভিউ বৈঠক কিংবা অন্তর্কলহের তদন্ত, কোনও কিছু নিয়েই আগ্রহী নয় প্রশাসনিক কমিটি। উলটে বলা হচ্ছে, ক্রিকেটীয় ব্যাপারস্যাপারে ঢোকার কোনও অধিকার সিওএ-র নেই। ভারতীয় ক্রিকেটের প্রশাসনিক দিকটাই তারা শুধু দেখতে পারে।

আগামী শুক্রবার নয়াদিল্লিতে নিজেদের মধ্যে বৈঠকে বসছে বিনোদ রাই নেতৃত্বাধীন সিওএ। কিন্তু সেখানে বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স রিভিউ কিংবা টিমে অর্ন্তকলহের তদন্ত- দু’টো প্রসঙ্গেরই ওঠার সম্ভাবনা প্রায় নেই। সোজাসুজি বললে, দু’টো বিষয়েরই ভবিষ্যৎ আপাতত বিশ বাঁও জলে।

এত দিন আইসিসি টুর্নামেন্ট বা বিদেশ সফর শেষ করে ভারতীয় টিম দেশে ফিরলে বা গুরুত্বপূর্ণ কোনও ঘটনা সফর চলাকালীন ঘটলে টিমের ম্যানেজারকে রিপোর্ট দিতে হত বোর্ড সচিবের কাছে। কিন্তু বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে হার নিয়ে কোনও ম্যানেজারের রিপোর্ট এখনও পর্যন্ত জমা পড়েছে বলে খবর নেই। বোর্ড সচিবেরই আর কোনও অস্তিত্ব এখন নেই। আর সিওএ বলে চলেছে যে, ক্রিকেটীয় ব্যাপারে নাক গলানো তাদের এক্তিয়ার বর্হিভূত। আর টিমে অর্ন্তদ্বন্দ্ব নিয়েও কিছু করা সম্ভব নয় মিডিয়া রিপোর্টের ভিত্তিতে। একমাত্র সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটার যদি এগিয়ে এসে কিছু জানায়, তা হলেই একমাত্র সিওএ কিছু করতে পারে। আশ্চর্য হল, বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ের পর সিওএ প্রধান বিনোদ রাই স্বয়ং বলেছিলেন যে, পারফরম্যান্স রিভিউ করা হবে।

[আরও পড়ুন: লক্ষ্য টি-২০ বিশ্বকাপ, ধোনিকে অবসর নিতে বারণ করছে টিম ম্যানেজমেন্টই]

বৈঠক ডাকা হবে। জানতে চাওয়া হবে, কেন পারল না টিম? কিন্তু কাপ থেকে টিমের বিদায়ের পনেরো দিন কেটে যাওয়ার পরেও কিছুই হয়নি। কোনও বৈঠক হয়নি। উল্টে আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দল নির্বাচন হয়ে গিয়েছে। মুশকিল হল, সিওএ নিজেরাই বিভক্ত। রিভিউ নিয়ে সিওএ প্রধানের মন্তব্যের পরের দিনই সিওএ-র আর এক সদস্য ডায়না এডুলজি বলে দেন যে, টিমের পারফরম্যান্স নিয়ে রিভিউ মিটিং করা সিওএ-র এক্তিয়ারে পড়ে না।
সিওএ-র এ হেন টালবাহানা দেখে ভারতীয় বোর্ডের কোনও কোনও কর্তা তীব্র ক্ষুব্ধ। এঁরা উষ্মা দেখিয়ে বলছেন, সিওএ শুধুমাত্র প্রশাসনিক ব্যাপার দেখার কথা বলছে। তা, ম্যানেজারের রিপোর্ট চাওয়াটা তো প্রশাসনিক কাজকর্মের মধ্যেই পড়ে। কেন সেটা চাওয়া হচ্ছে না? কেন জানতে চাওয়া হচ্ছে না যে, টিমে সত্যিই কোনও অর্ন্তদ্বন্দ্ব আছে, নাকি পুরোটাই মিডিয়ার কল্পনা সৃষ্ট? বলা হচ্ছে, বোর্ড রাজনীতি নিয়ে বেশি ভাবতে গিয়ে ক্রিকেটের বারোটা বাজিয়ে দিচ্ছে সিওএ।

[আরও পড়ুন: ভারতীয় দলের কোচ হতে চেয়ে আবেদন জয়বর্ধনের! লড়াইয়ে একাধিক হেভিওয়েট]

আগামী শুক্রবার নয়াদিল্লিতে নিজেদের মধ্যে বৈঠকে বসছে বিনোদ রাই নেতৃত্বাধীন সিওএ। কিন্তু সেখানে বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স রিভিউ কিংবা টিমে অর্ন্তকলহের তদন্ত- দু’টো প্রসঙ্গেরই ওঠার সম্ভাবনা প্রায় নেই। সোজাসুজি বললে, দু’টো বিষয়েরই ভবিষ্যৎ আপাতত বিশ বাঁও জলে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে