২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পাকিস্তানে ক্রিকেট মাঠে জঙ্গিহানা, ক্রিকেটার-দর্শকদের নিশানা করে চলল এলোপাথাড়ি গুলি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: August 8, 2020 2:25 pm|    Updated: August 8, 2020 2:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রিকেট মাঠে সন্ত্রাসহানা। ঘটনাস্থল সেই ‘বিতর্কিত’ পাকিস্তান। ক্রিকেটার, দর্শসকদের সামনেই এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে জঙ্গিরা। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায়।

২০০৯ সালের ভয়ংকর জঙ্গিহানার সাক্ষী হয়েছিল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট টিম। তারপর দীর্ঘদিন সন্ত্রাস আতঙ্কে পাকিস্তানের মাটিতে পা রাখতে চায়নি কোনও দেশ। আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করার অধিকারই কার্যত খুইয়েছিল পাক ক্রিকেট বোর্ড। পাক দলের ঘরের মাঠ হয়ে উঠেছিল সংযুক্ত আরব আমিরশাহী। কিন্তু দেশে ক্রিকেট ফেরাতে বারবার পাকিস্তানকে নিরাপদ বলে দাবি করে এসেছে বোর্ড। বলা হয়েছে, সফরকারী দেশের সেখানে নিরাপত্তার কোনও সমস্যা হবে না। ক্রিকেটারদের সুরক্ষা নিয়ে আপস করা হবে না। বোর্ডের আশ্বাসের পর ফের আন্তর্জাতিক ম্যাচ ফেরে পাকিস্তানে। জিম্বাবোয়ে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, বাংলাদেশের মতো একাধিক দেশ খেলতে যায় সেখানে। কিন্তু শুক্রবারের ঘটনায় নতুন করে ব্যাকফুটে চলে গেল প্রতিবেশী রাষ্ট্র। জঙ্গি হানার জেরে মাঝপথেই বন্ধ করে দিতে হল ম্যাচ।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের শিবিরে করোনার থাবা, আক্রান্ত ১১ ফুটবলার]

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখওয়ায় কোহাত ডিভিশনের একটি ম্যাচ চলছিল গতকাল। যা দেখতে মহামারীর মধ্যেও সমর্থকদের ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। একটি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, টুর্নামেন্টের ফাইনালে বল গড়ানোর খানিক পরই আচমকা ক্রিকেটার ও দর্শকদের দিকে তাক করে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। সেখানে উপস্থিত ছিল সংবাদমাধ্যম, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরাও। গুলির আওয়াজ শুনেই দিশেহারার মতো এদিক-সেদিক ছুটতে থাকেন সকলেই। তীব্র আতঙ্ক আর উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়।

এক প্রত্যক্ষদর্শীর কথায়, মাঠের কাছেই একটি উঁচু পাহাড় থেকে জঙ্গিরা গুলি চালাতে থাকে। ক্রিকেটার-দর্শক-সাংবাদিকরা কোনওক্রমে পালিয়ে প্রাণ বাঁচান। সেই জন্যই সৌভাগ্যক্রমে কোনও প্রাণহানি ঘটেনি। কিন্তু এই ঘটনা ফের একবার খেলার মাঠের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল।

[আরও পড়ুন: আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে ভারতেই, আগের সূচিই বহাল রাখল ICC]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement