BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বার্থের সংঘাতের নোটিস দ্রাবিড়কে, বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন সৌরভ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: August 7, 2019 10:03 am|    Updated: August 7, 2019 11:30 am

Rahul Dravid got conflict of interest notice from BCCI Ethics Officer

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শচীন তেণ্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, ভিভিএস লক্ষ্মণের পর এবার ভারতীয় ক্রিকেটের স্বর্ণযুগের আরেক কিংবদন্তি ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ তুললেন বিসিসিআই এথিকস অফিসার বা ভারতীয় বোর্ডের নীতিশাসক। নবতম ‘অভিযুক্ত’র নাম রাহুল শরথ দ্রাবিড়!

তাৎপর্যপূর্ণভাবে সৌরভ বাদে বাকি তিন মহাতারকা ক্রিকেটারের বিরুদ্ধেই স্বার্থের সংঘাতের নোটিস পাঠিয়েছেন বিসিসিআইয়ের ওম্বুডসম্যান তথা এথিকস অফিসার অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ডি কে জৈন। দ্রাবিড়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি একইসঙ্গে বেঙ্গালুরুর জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির (এনসিএ) ডিরেক্টর পদে রয়েছেন। আবার ইন্ডিয়া সিমেন্টস গ্রুপের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদেও আছেন। উল্লেখ্য, আইপিএলের সফলতম ফ্র‌্যাঞ্চাইজি টিম চেন্নাই সুপার কিংসের (সিএসকে) মালিক ইন্ডিয়া সিমেন্টস। যে কোম্পানির সর্বময় কর্তা প্রাক্তন বোর্ড প্রধান এন শ্রীনিবাসন। বোর্ডের কাছে দ্রাবিড়ের বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ তুলেছেন মধপ্রদেশ ক্রিকেট সংস্থার আজীবন সদস্য সঞ্জীব গুপ্তা।

[আরও পড়ুন: সুযোগ কাজে লাগালেন তরুণরা, নিয়মরক্ষার ম্যাচে সহজ জয় ভারতের]

দ্রাবিড়ের বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের নোটিস পাঠানোর কথা স্বীকার করে নিয়ে এদিন বোর্ডের ওম্বুডসম্যান তথা এথিকস অফিসার বলেছেন, “হ্যাঁ, এনসিএ ডিরেক্টর আবার ইন্ডিয়া সিমেন্টসের ভাইস প্রেসিডেন্ট, একইসঙ্গে দু’টো পদে থাকার কারণে আমি মিস্টার রাহুল দ্রাবিড়কে গত সপ্তাহে স্বার্থের সংঘাতের নোটিশ পাঠিয়েছি। ওঁকে উত্তরের জন্য দু’সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে। ওঁর ব্যাখ্যার ভিত্তিতে আমি সিদ্ধান্ত নেব এব্যাপারে আরও এগোনো হবে কি না।” ক্রিকেটমহলে কান পাতলে যা শোনা যাচ্ছে যে, দ্রাবিড় আগামী ১৬ আগস্টের মধ্যে তাঁর উত্তর জানাবেন বোর্ডের ওম্বুডসম্যানকে। তারপর খুব সম্ভবত দ্রাবিড় সশরীরে বিচারপতি জৈনের সামনে শুনানির জন্য উপস্থিতও হবেন।

তবে গোটা ঘটনায় অত্যন্ত বিরক্ত তাঁর এককালের সতীর্থ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বিসিসিআইয়ের কার্যকলাপে তিনি বিস্মিত ও ক্ষুব্ধ। টুইটারে তিনি লেখেন, “ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন ফ্যাশন হয়েছে। স্বার্থের সংঘাত। সংবাদে থাকার সেরা উপায়। ভারতীয় ক্রিকেটকে ঈশ্বর রক্ষা করুন। দ্রাবিড়কেও নোটিস ধরানো হল।” সৌরভের সঙ্গে গলা মিলিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার
হরভজন সিংও।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলে ক্ষুব্ধ আফ্রিদি, পাক তারকাকে যোগ্য জবাব গম্ভীরের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement