৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ভারত: ৫০২-৭, ৩২৩-৪ ডিঃ (রোহিত ১২৭, পুজারা ৮১)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৪৩১, ১১-১ (মার্কারাম ৩, ডি ব্রুইন ৫)

জয়ের জন্য ভারতের প্রয়োজন ৯ উইকেট

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ওপেনার হিসেবে প্রথম টেস্টে নেমেই অনবদ্য নজির গড়লেন রোহিত শর্মা। প্রথম ইনিংসে ১৭৬ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসেও দুর্দান্ত শতরান করলেন রোহিত। সুনীল গাভাসকরের পর দ্বিতীয় ভারতীয় ওপেনার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরির মালিক হলেন রোহিত। হিটম্যানের এই সেঞ্চুরিই বিশাখাপত্তনম টেস্টে ভারতকে ফের অ্যাডভান্টেজ দিয়ে দিল। 

[আরও পড়ুন: টি-টোয়েন্টিতে নয়া রেকর্ড হরমনপ্রীতের, টপকে গেলেন ধোনি-রোহিতদেরও]

এদিন সকাল থেকেই কঠিন পরীক্ষার সামনে পড়তে হয় বোলারদের। প্রোটিয়াদের শেষ দুটি উইকেট তুলতেই চরম সমস্যায় পড়তে হয় ভারতকে। শেষ পর্যন্ত প্রোটিয়াদের ইনিংস শেষ হয় ৪৩১ রানে। অশ্বিন একাই দখল করেন ৭টি উইকেট।  দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু থেকেই দ্রুত রান তোলার লক্ষ্যে নামে ভারত। আগের ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরি করা মায়াঙ্ক আগরওয়াল এদিন ব্যর্থ হন। মাত্র ২১ রানে পতন হয় ভারতের প্রথম উইকেটের। এরপর ইনিংসের হাল ধরেন রোহিত এবং পুজারা। রোহিত একদিকে আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলা শুরু করেন। পুজারা অবশ্য শুরুর দিকটা স্বভাবসিদ্ধভাবে ধীরেসুস্থে করেন। তবে, সেট হওয়ার পর তিনিও আক্রমণাত্মক হন। দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে ১৬৯ রান তোলে ভারত। পুজারা করেন ৮১ রান। মাত্র ১৩৩ বলে শতরান পূর্ণ করেন রোহিত। শেষপর্যন্ত ১৪৯ বলে ১২৭ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি। সেই সঙ্গে সুনীল গাভাসকারের পরে দ্বিতীয় ওপেনার হিসেবে এক টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরির মালিক হলেন তিনি। অন্যান্যদের মধ্যে এক টেস্টে জোড়া সেঞ্চুরির মালিক হয়েছেন   বিজয় হাজারে, রাহুল দ্রাবিড়, বিরাট কোহলি ও অজিঙ্কা রাহানে। তার মধ্যে গাভাসকার তিনবার ও দ্রাবিড় দুবার এই কীর্তি করেছেন। শেষদিকে, জাদেজা মাত্র ৩২ বলে ৪০ রান এবং কোহলি ২৫ বলে ৩১ রান। ভারত দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেটে ৩২৩ রানের মাথায় ডিক্লেয়ার করে।

[আরও পড়ুন: এলগার-ডি’ককের জোড়া সেঞ্চুরি, প্রথম টেস্টে লড়াই দিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা]

জয়ের জন্য ৩৯৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে খেলতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আগের ম্যাচে দুর্দান্ত শতরান করা এলগার এদিন সস্তায় প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন। দিনের শেষে প্রোটিয়াদের স্কোর ১ উইকেটে ১১ রান। জয়ের জন্য ভারতের প্রয়োজন আর ৯ উইকেট। অন্যদিকে, দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ের জন্য প্রয়োজন ৩৮৪ রান।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং