BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘দুঃস্বপ্নের মতো’, বিশ্বসেরা এই চার বোলারকে খেলতে ভয় পান রোহিত শর্মাও!

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 3, 2020 2:05 pm|    Updated: May 3, 2020 5:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি রোহিত শর্মা (Rohit Sharma)। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে এই মুহূর্তে বিশ্বে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। নামের পাশে ওয়ানডে ক্রিকেটে তিনটে ডবল সেঞ্চুরি লেখা আছে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির মালিক। যাকে ব্যাট হাতে দেখলে বিশ্বের তাবড় তাবড় বোলার ভয়ে কাঁপেন। সেই রোহিত শর্মা কিনা বলছেন, বিশ্বের অন্তত চারজন এমন বোলার আছেন, যাদের খেলাটা দুঃস্বপ্নের মতো মনে হয়েছে তাঁর।

Dale-Steyn

এমনিতে রোহিত ফাস্ট বোলারদের দুর্দান্ত খেলেন। যেটুকু সমস্যায় তিনি পড়েছেন সেটাও বাঁহাতি পেসারদের বিরুদ্ধে। কিন্তু টিম ইন্ডিয়ার ভাইস-ক্যাপ্টেন এখন যে তালিকা দিলেন, সেই তালিকার চারজনই ডানহাতি বোলার এবং প্রত্যেকে দুর্দান্ত আউট-সুইং করাতে পারেন। রোহিত জানিয়েছেন, ২০০৭ সালে যখন তিনি প্রথম অস্ট্রেলিয়া সফরে যান তখন ব্রেট লি’র (Brett Lee) ভয়ে রাতে ঘুম হতো না তাঁর। রোহিত বলছেন, ‘ব্রেট লি’র তখন সেরা সময়। আমি ওঁর ভিডিওগুলো দেখতাম। নিয়মিত ১৫০-১৫৫ কিলমিটার বেগে বল করত। আমার মতো তরুণ ব্যাটসম্যানের পক্ষে সেটা খেলা দুস্বপ্নের মতোই ছিল।’ রোহিতের তালিকায় দ্বিতীয় বোলার দক্ষিণ আফ্রিকার ডেল স্টেইন। তিনি বলছেন, ‘গতি আর সুইংয়ের সেই মিশেল সামলানো অসম্ভব হয়ে যেত।’

rabada Comic delivery

[আরও পড়ুন: দু’বছর আগে তিনবার আত্মহত্যার কথা ভেবেছিলেন, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি শামির]

বাস্তবিকই এই দুই বোলার অত্যন্ত সমস্যায় ফেলেছেন ‘হিটম্যান’কে। স্টেইন দলে থাকাকালিন রোহিত দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩টে টেস্ট ১৪ টা ওয়ানডে এবং ৩টে টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। এই ম্যাচগুলিতে রোহিতের গড় ছিল তিরিশেরও কম। এদিকে ব্রেট লি দলে থাকাকালীন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে রোহিত খেলেছেন ৭টা ওয়ানডে এবং ৫টা টি-টোয়েন্টি। এতে তাঁর সংগ্রহ যথাক্রমে ১৩৮ এবং ১৬ রান। এত গেল দুই অবসরপ্রাপ্ত বোলারের কথা। রোহিত এদিন ফাঁস করেছেন এই প্রজন্মের দুই বোলারও তাঁকে ভীষণ সমস্যায় ফেলেন। প্রত্যাশিতভাবেই প্রথমজন হলেন কাগিসো রাবাদা। তবে দ্বিতীয় নামটি একটু অবাক করার মতো। তিনি হলেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা জস হ্যাজেলউড। রোহিত বলছেন, টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাজেলউডকে একেবারেই খেলতে চান না তিনি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement