২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী ৩ নভেম্বর থেকে ভারতের মাটিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজে নামবে বাংলাদেশ। ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট সিরিজ শেষ হওয়ার আগেই টিভি চ্যানেলে সেই সিরিজের প্রচারও শুরু হয়ে গিয়েছে। দুই প্রতিবেশী দেশের ম্যাচ ঘিরে উত্তেজনার পারদ চড়ছে ক্রমেই। কিন্তু তারই মধ্যে বাংলাদেশের ভারতে আসা নিয়ে দেখা দিল অনিশ্চয়তা। সোমবার শাকিব-আল-হাসানের মন্তব্যের পর থেকেই তাঁদের ভারত সফর নিয়ে তৈরি হল ধোঁয়াশা।

কী এমন বললেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার? সোমবার সাংবাদিক সম্মেলনে শাকিব সাফ জানান, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) যতক্ষণ না তাঁদের এগারোটি দাবি মেনে নিচ্ছেন, ততক্ষণ কোনওরকম ক্রিকেট ম্যাচে অংশ নেবে না দল। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের জন্য সম্প্রতি একটি নতুন নিয়ম চালু করেছে বোর্ড। যেখানে বলা হয়েছে, টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া প্রত্যেকটি দলের প্রথম একাদশে অন্তত একজন লেগ-স্পিনার রাখতে হবে। নির্দেশ না মানায় দুই দলের হেড কোচকে নির্বাসিতও করেছে বোর্ড। আর এই বিষয়টিই শাকিবদের ক্ষোভের অন্যতম কারণ। তাঁর কথায়, এতে ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সকে চেপে দেওয়া হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গল না মোহনবাগান, কোন ক্লাবকে সমর্থন করেন নোবেলজয়ী অভিজিৎ?]

শাকিব বলেন, “এতবছর ধরে আমাদের দল একটা লেগ স্পিনার বাছাই করতে পারেনি। আর হঠাৎ করে ঠিক হয়ে গেল বিপিএলে সাতজন লেগ-স্পিনার নিতে হবে। এমন সিদ্ধান্ত বেশ অবাকই করেছিল। বোর্ড নিশ্চয়ই ভাল কিছু ভেবেই সিদ্ধান্তটা নিয়েছে।” তবে শাকিবের মতে, বিপিএল বোলার তৈরি করার জায়গা নয়। অলরাউন্ডার বলেন, “আমার মনে হয়, আত্মবিশ্বাসী আর ধারাবাহিক হয়ে উঠতে লেগ স্পিনারদের অনেক বেশি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলতে হবে। এই টুর্নামেন্টটা (বিপিএল) আন্তর্জাতিক মানের। বিশ্বের নানা তারকা ক্রিকেটারদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম এখানে শেয়ার করে নিতে পারেন বাংলাদেশিরা। তাই এটা লেগ-স্পিনার তৈরির জায়গা নয়।” সেই কারণেই বোর্ডের এমন সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট তিনি।

এই বিষয়টির পাশাপাশি দেশের ক্রিকেট স্টেডিয়ামের পরিকাঠামো নিয়েও বেশ হতাশ শাকিব। জিম থেকে ইন্ডোর- প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই উন্নতির প্রয়োজন আছে বলে মনে করেন তিনি। সেই সঙ্গে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। তাঁর মতে, ঘরোয়া টুর্নামেন্টে ক্রিকেটাররা যে অর্থ পান, তা যথেষ্ট নয়। ক্রিকেটারদের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা অনুযায়ী অর্থ দেওয়া উচিত। 

[আরও পড়ুন: পাঁচ ছক্কা হাঁকিয়ে ৩১ রান, বিশ্বকে চমকে দিয়ে শচীনের বিরল রেকর্ড ছুঁলেন উমেশ]

ভারতে তিনটি টি-টোয়েন্টি এবং দুটি টেস্ট খেলার কথা বাংলাদেশের। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে সিরিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন দেখা দিয়েছে। এবার দেখার, চাপের মুখে বোর্ড নিজের সিদ্ধান্তে বদল আনে কি না।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং