১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্পিন বোলিংয়ে ‘ঈশ্বরপ্রদত্ত’ ক্ষমতার মতো বিভিন্ন নারীর সঙ্গে যৌনসংসর্গেও তিনি যে ‘বিরল’ ক্ষমতার অধিকারী, তা নিয়ে নতুন করে আর কিছু বলার নেই। গোটা ক্রিকেটবিশ্ব জানে। অতীতে একাধিক মহিলার সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়িয়েছেন। কিন্তু তাই বলে একসঙ্গে তিন মহিলার সঙ্গে যৌনসংসর্গ! বান্ধবী আর দুই যৌনকর্মীর সঙ্গে একই সময়, একই সঙ্গে, একই বিছানায়!

বিস্ময়ে বাকরুদ্ধ হয়ে যাচ্ছেন? স্তম্ভিত লাগছে? লাগলে সামলে নিন। কারণ ওয়ার্ন পুরো কাণ্ডটাই করেছেন ঘরের জানালা খুলে রেখে! এবং ওয়ার্নের বাড়ি থেকে ভেসে আসা নানাবিধ আওয়াজের ঠেলায় প্রতিবেশীরা ভাল করে ঘুমোতেও পারেননি! চিরঐতিহ্যের লর্ডস থেকে মাত্র পাঁচ মিনিট দূরত্বে বিলাসবহুল বাড়ি কিনেছেন ওয়ার্ন। অভিজাত মহল্লায়। সেখানেই শুক্রবার রাতে ঘটনাটা ঘটে। ওয়ার্ন আপাতত ইংল্যান্ডে, অ্যাসেজে কমেন্ট্রির কাজে ব্যস্ত। আর কিংবদন্তি স্পিনারের ‘রহস্যজনক’ বান্ধবীই ‘জাগুয়ার’ ড্রাইভ করে দুই যৌনকর্মীকে নিয়ে আসেন তাঁর বাড়িতে। একজন উনিশ বছরের, সদ্য যৌবনে পা দেওয়া ডেভিনা। দ্বিতীয় জন বছর সাতাশের পপি। যাঁরা ওয়ার্নের বাড়ি ঢোকার আধঘণ্টার মধ্যে ‘কাজ’ শুরু করে দেন ৭০৮ টেস্ট উইকেটের অধীশ্বর। আর লোকে কীভাবে না ভাবছে, অভিজাত প্রতিবেশীদের কোনও অসুবিধে হচ্ছে কি না, তাতে নাকি বিন্দুমাত্র পাত্তাও দেননি।

[আরও পড়ুন: বুমরাহর হ্যাট্রিক-বিহারীর সেঞ্চুরি, দ্বিতীয় টেস্টেও চালকের আসনে ভারত]

ওয়ার্নের এক প্রতিবেশীই সেটা বলেছেন। তিনি বলেছেন যে, নিজের বাড়িতে উদ্দাম যৌনতায় মেতেছিলেন ওয়ার্ন। তাও আবার জানালা-টানালা খোলা রেখে। আর ভেতরে যা চলেছে, তার ‘ধারাবিবরণী’ বাইরে থেকে ভাল মতোই শোনা গিয়েছে! অভিজাত প্রতিবেশীদের বিভিন্ন আওয়াজের চোটে ঘুম যে উড়েছে, সেটা নিশ্চিত। ঘণ্টা দু’য়েক পর তিন মহিলা হাসতে হাসতে বেরিয়ে আসেন ওয়ার্নের বাড়ি থেকে। আর তাঁর ‘রহস্যজনক’ বান্ধবীই ‘জাগুয়ার’ ড্রাইভ করে দুই যৌনকর্মীকে ছেড়ে আসেন। এদিন বাড়ির বাইরে বেরনোর সঙ্গে সঙ্গে ইংল্যান্ডের এক কাগজের ফোটোগ্রাফার ছবি তুলতে শুরু করে ওয়ার্নের। বিরক্তিতে নাক-মুখ কুঁচকে ফেলেন ওয়ার্ন। কিন্তু ততক্ষণে চতুর্দিকে ছড়িয়ে গিয়েছে তাঁর ‘কীর্তি’র কাহিনি। লেগস্পিনের জাদুকরকে মহাবিতর্কে জড়িয়ে দিয়ে।

woman

আর হবে নাও বা কেন? এটা তো প্রথম নয়। আজ থেকে উনিশ বছর আগে ব্রিটিশ নার্স ডোনা রাইটের সঙ্গে তাঁর ‘সম্পর্ক’ নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল। বিবাহিত মহিলা হওয়া সত্ত্বেও রাইটকে তিনি নাকি অশ্লীল মেসেজ পাঠাতেন। ফোন করতেন। ওয়ার্ন নিজেও ততদিনে বিবাহিত। পিতা। ওই বিতর্কের ফলে অস্ট্রেলিয়ার সহ অধিনায়কত্বও চলে যায় ওয়ার্নের। ২০০৩ সালে ড্রাগ পরীক্ষায় ফেল করে ওয়ার্ন যখন নির্বাসিত হন, তার কয়েক মাসের মধ্যে মেলবোর্নের এক স্ট্রিপার অ্যাঞ্জেলা গালাঘার দাবি করেন যে ওয়ার্নের সঙ্গে তাঁর তিন মাসের প্রেম ছিল! তার দু’বছরের মধ্যে একত্রিশ বছরের কেরি কলিমোরের সঙ্গে যৌনসম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠে ওয়ার্নের বিরুদ্ধে। সেটা ২০০৫ সাল। সেই একই বছরে পঁচিশ বছরের ব্রিটিশ ছাত্রী লরা সেয়ার্স ফাঁস করেন, কীভাবে ওয়ার্ন তাঁর সঙ্গে যৌনসঙ্গম করার জন্য কাকুতি-মিনতি করেছেন। এর পরেই ওয়ার্নের স্ত্রী সিমোন সম্পর্ক শেষ করে দেন ক্রিকেটার স্বামীর সঙ্গে।

window

[আরও পড়ুন: ভারতীয় ক্রিকেটের রাশ কি এবার অমিত শাহর হাতে? বাড়ছে জল্পনা]

কিন্তু তার পরেও ওয়ার্নকে থামানো যায়নি। পরবর্তী সময়ে ব্রিটিশ মডেল থেকে শুরু করে অন্তর্বাস টাইকুন, বিখ্যাত হলিউড অভিনেত্রী লিজ হার্লি সবার সঙ্গেই কখনও না কখনও সম্পর্ক ছিল ওয়ার্নের। অতীতে একসঙ্গে দুই মহিলার সঙ্গেও যৌনসংসর্গ করার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। কিন্তু এবারের ‘কীর্তি’ বোধহয় সব কিছুকে ছাপিয়ে গেল। এক নয়, দুই নয়, একসঙ্গে তিন মহিলার সঙ্গে একই বিছানায় যৌন সংসর্গ করে বসলেন তিনি। সত্যি, পারেন বটে শেন কিথ ওয়ার্ন!

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং