BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

গোলাপি টেস্টের চারদিনের টিকিট শেষ, কোহলিদের প্রস্তুতিতে ইডেনে নয়া ফিল্ডিং যন্ত্র

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 20, 2019 9:03 am|    Updated: November 20, 2019 12:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইডেনের গোলাপি রঙ্গমঞ্চের পর্দা উঠবে শুক্রবার। তার আগে মঙ্গলবার সকালেই সাদা টি শার্ট, কালো টুপি, কালো সানগ্লাস আর স্লিং ব্যাগ কাঁধে কলকাতায় হাজির বিরাট কোহলি। দিল্লি থেকে কলকাতা ভোর ছ’টার ফ্লাইট নিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক। কোনও ডমেস্টিক ফ্লাইটে নাকি বিজনেস ক্লাস পাওয়া যাচ্ছিল না, অগত‌্যা ভোর ছ’টার ফ্লাইটেই ওঠেন তিনি। তবে কোহলি একা নন, কোচ রবি শাস্ত্রী-সহ দলের অন্যান্য তারকারাও পা রেখেছেন তিলোত্তমায়। আজই নেমে পড়বেন প্র্যাকটিসে। কিন্তু এরই মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র ইডেন আগমনের দিনক্ষণ বদলের খবর এল।

শুক্রবার, অর্থাৎ ভারত-বাংলাদেশ দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনই ইডেনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা হওয়ার কথা ছিল অমিত শাহর। কিন্তু প্রশাসন সূত্রে জানা গেল, ২২ নয়, ২৩ নভেম্বর কলকাতা আসবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তাই হাসিনার সঙ্গে শাহর সাক্ষাতের কোনও সম্ভাবনা নেই। বিজেপির তরফে জানা গিয়েছে, ওইদিন ইডেনে শাহর সঙ্গে ভিভিআইপি বক্সে দলের কেন্দ্রীয় ও রাজ্যের কয়েকজন শীর্ষ নেতৃত্ব থাকতে পারেন।

[আরও পড়ুন: আশা জাগিয়েও ব্যর্থ সুনীলরা, ওমানের কাছে ফের হার ভারতের]

এদিকে ইচ্ছা থাকলেও মঙ্গলবার ইডেনমুখো হলেন না শাস্ত্রীরা। গণ্ডগোলটা ঘটে ইন্দোর থেকে কলকাতা আসা ভারতীয় ক্রিকেটারদের চার্টার্ড ফ্লাইট নিয়ে। যে ফ্লাইটে কোচ-সহ জনা সাত-আট ক্রিকেটার ছিলেন, দুপুর সাড়ে বারোটায় নামার কথা ছিল সেই ফ্লাইটির। কিন্তু তা দেরি করায় কলকাতা নামতে নামতে শাস্ত্রীদের প্রায় দুপুর তিনটে বেজে যায়। প্রথমে একপ্রস্থ ঠিক ছিল যে, ক্রিকেটাররা কেউ না এলেও শাস্ত্রী একবার টিমের ব‌্যাটিং কোচ ভরত অরুণকে নিয়ে ইডেন ঘুরে যাবেন সন্ধের দিকে। কিন্তু কারও পক্ষেই আসা আর সম্ভব হয়নি। তবে গোলাপি বলের টেস্টের প্রস্তুতিতে কোনও ঘাটতি রাখছে না ভারতীয় দল। শহরে পৌঁছে টিম ম্যানেজমেন্ট সিএবিকে বলেছে যে, গাড়ির ব‌্যাটারির বন্দোবস্ত করে রাখতে। টিম নাকি নতুন ফিল্ডিং যন্ত্র এনেছে। সেখানে সেই ব‌্যাটারি লাগবে।

এদিকে, গোলাপি টেস্ট উপলক্ষে শহর সেজেছে গোলাপি আভায়। গঙ্গাবক্ষ, টাটা সেন্টারে গোলাপি আলোর খেলা শুরু হয়ে যাবে আজ সন্ধে থেকে। টাটা সেন্টারে তো আলোর মধ‌্যে দিয়ে অসংখ‌্যা গোলাপি বলও ফুটিয়ে তোলা হবে। প্রতি পনেরো মিনিট অন্তর চলবে চার মিনিটের শো। মাঠে অনুষ্ঠানের সময় আবার যে দু’শো নৃত‌্যশিল্পী উপস্থিত থাকবেন, তাঁদের সবার ঠিকুজি-কোষ্ঠী নিয়ে রাখা হবে। যাঁরা বাদ‌্যযন্ত্র বাজাবেন, তাঁদেরও যাবতীয় নাম-ঠিকানা-পরিচয়পত্র আগাম জমা দিতে হবে। আর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ইডেনে থাকার সময় ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ‌্যায় ছাড়া সিএবি-র পাঁচজন পদাধিকারী শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর আশেপাশে উপস্থিত থাকতে পারবেন। দাদা এদিন জানান, ভারত-বাংলাদেশ টেস্টের প্রথম চারদিনের টিকিট শেষ ইতিমধ্যেই শেষ হয়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: পাঁচ বছরের জন্য নির্বাসিত হলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন]

তবে ইডেনের প্রশাসনিক জটিলতা নিয়ে খানিকটা চিন্তায় সিএবি। যেমন ইডেনের ফ্লাডলাইট, আলো প্রভৃতি দেখে গেল পিডব্লিউডি। কিন্তু পূর্ণ ছাড়পত্র তারা দিয়ে গেল না! বলে গেল, তাদের ইঞ্জিনিয়ারদের দিয়ে পরীক্ষা করানোর পরেই দেওয়া হবে পূর্ণ ছাড়পত্র। ফ্লাডলাইটের ছাড়পত্র নিয়ে জটিলতা মানে তো দিন-রাতের টেস্ট নিয়েই একপ্রকার জটিলতা। দিনের খেলাই তো অর্ধেক সময় হবে ফ্লাডলাইটে! যা খবর, বুধবার এ সমস্ত যাবতীয় ছাড়পত্র জোগাড় করার কাজে নামতে হবে সৌরভকে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement