২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: গোলাপি টেস্ট খেলতে ইতিমধ্যেই শহরে পা রেখেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তবে খেলা শুরু আগেই সোনারপুরের একটি এইচআইভি আক্রান্ত অনাথ শিশুদের হোমে পৌঁছে গেলেন বিরাট। সেখানে গিয়ে কচিকাঁচাদের সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটান তিনি। অধিনায়ককে কাছে পেয়ে আনন্দের জোয়ারে ভেসেছে অনাথ আশ্রমের খুদেরা। খুশি হোম কর্তৃপক্ষও।

ইডেনের গোলাপি রঙ্গমঞ্চের পর্দা উঠবে শুক্রবার। তার আগে মঙ্গলবার সকালেই সাদা টি শার্ট, কালো টুপি, কালো সানগ্লাস আর স্লিং ব্যাগ কাঁধে কলকাতায় হাজির হয়েছেন বিরাট কোহলি। বুধবার থেকেই প্র্যাকটিসে নামার কথা তাঁর। কিন্তু প্র্যাকটিস শুরুর আগেই বুধবার সাতসকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরে পৌঁছে গেলেন বিরাট। জানা গিয়েছে, একটি বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের জন্যই সোনারপুর গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু শুটিংয়ের ফাঁকে প্রচুর উপহার সামগ্রী নিয়ে তিনি হাজির হন এলাকার একটি অনাথ আশ্রমে। সাতসকালে ভারতের অধিনায়ককে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বাসে ভাসে হোমের খুদেরা।

virat-2

[আরও পড়ুন: লেগিংস বিতর্কের জের, বোলপুরের স্কুলের প্রিন্সিপালকে জিজ্ঞাসাবাদ তদন্ত কমিটির]

এদিন কচিকাঁচাদের সঙ্গে প্রাতরাশ সারেন অধিনায়ক। এরপর দীর্ঘক্ষণ তাদের সঙ্গে সময় কাটান, ছবিও তোলেন বিরাট। খুদেদের হাতে তুলে দেন উপহার সামগ্রী। অধিনায়ককে রিটার্ন গিফটও দেয় খুদেরা। বিরাটের টেস্টের সবোর্চ্চ স্কোর ২৫৪। সেই কথা মাথায় রেখে রাতভোর জেগে ২৫৪টি গোলাপ ফুল দিয়ে তোড়া তৈরি করে অধিনায়ককে উপহার দেয় খুদেরা। বিরাটকে বাংলার চা ও চানাচুর খাওয়ায় তারা। দীর্ঘক্ষণ তাদের সঙ্গে কাটিয়ে ফিরে যান বিরাট। আশ্রমের প্রতিষ্ঠাতা অঞ্জন ঘোষ জানিয়েছেন, শুক্রবার ইডেনে গোলাপি টেস্ট শুরুর আগে এই খুদেরাই খেলোয়ারদের হাত ধরে তাঁদের পৌঁছে দেবে বাইশ গজে। তবে খেলা শুরুর আগে বিরাটের হোমে আসা এবং বাচ্চাদের সঙ্গে সময় কাটানোয় অত্যন্ত খুশি অনাথ আশ্রম কর্তৃপক্ষ।

দেখুন ভিডিও: 

ছবি ও ভিডিও: বিশ্বজিৎ নস্কর

[আরও পড়ুন: শাসকদলের উদ্বেগ বাড়িয়ে বাংলার সব আসনে প্রার্থী দিতে চলেছে ওয়েইসির দল]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং