৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনের আগেই অন্য এক নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী এক ভারতীয়। আর তাতেই দেশের ফুটবলের মুকুটে যুক্ত হল আরও একটি পালক। প্রথমবার ফিফা কাউন্সিলের সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হলেন কোনও ভারতীয়। এই অনন্য নজির গড়লেন সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের (এআইএফএফ) সভাপতি প্রফুল প্যাটেল।

[আরও পড়ুন: অ্যান্টিবায়োটিকে সাড়া দিচ্ছেন পেলে, অনেকটাই সুস্থ ফুটবল সম্রাট]

শনিবারই ফিফার তরফে একথা ঘোষণা করা হয়। জানানো হয়, কুয়ালালামপুরে ২৯তম এএফসি কংগ্রেসে এই পদের জন্য মোট আটজন নির্বাচনী লড়াইয়ে ছিলেন। যেখানে ৪৬টির মধ্যে ৩৮টি ভোট পেয়েছেন প্রফুল। নির্বাচনে জিতে খুশি প্যাটেল বলছেন, “আমি অত্যন্ত আপ্লুত। আমাকে এই পদের যোগ্য মনে করার জন্য এএফসির প্রত্যেকের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। ফিফা কাউন্সিলের সদস্য হিসেবে আমার কর্তব্যও অনেকখানি। শুধু নিজের দেশই নয়, গোটা এশিয়া মহাদেশের প্রতিনিধিত্বের দায়িত্বে এখন আমার কাঁধে। প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানিয়েই নিজের পথ চলা শুরু করছি।” ভারতীয় হিসেবে দেশকে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে দিয়েছেন প্রফুল প্যাটেল। সভাপতির প্রশংসা করে এআইএফএফ-এর ভাইস-প্রেসিডেন্ট সুব্রত দত্ত বলেন, “এই জয় ভারতীয় ফুটবলের ইতিহাসে নয়া মাইলফলক তৈরি করল। যোগ্য ব্যক্তি হিসেবেই এই সম্মান পেলেন তিনি। তাঁর নেতৃত্বেই ভারতীয় ফুটবল আরও উন্নত হয়েছে। ফিফা কাউন্সিলের সদস্য হিসেবে এশিয়ার ফুটবলকে অনেক দূর এগিয়ে যাবেন তিনি।” একই সুর সচিব কুশল দাসের গলাতেও। প্রফুল প্যাটেলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনিও।

[আরও পড়ুন: বিমাতৃসুলভ আচরণ ফেডারেশনের, ক্লাব বন্ধের হুমকি মিনার্ভা কর্ণধারের!]

উল্লেখ্য, ২০১৭-য় এদেশে সফলভাবে অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল ফেডারেশন। এমনকী আগামী বছরও ফিফা অনূর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হতে চলেছে ভারতই। ভারতীয় ক্লাব লাইসেন্সিং সিস্টেম চালুর বিষয়েও বড় ভূমিকা পালন করেছিলেন প্যাটেল। তাছাড়া আইএসএলের উৎপত্তি ও তার জনপ্রিয়তার নেপথ্যেও ফেডারেশন সভাপতির অবদান কতটা, তা সকলেরই জানা। তাই ভারতীয় ফুটবল মহলের আশা, তাঁর হাত ধরেই সাফল্যের শিখরে পৌঁছে যাবে এশীয় ফুটবল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং