১২ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আই লিগের জন্য খারাপ খবর। বন্ধ হচ্ছে আরও একটি বড় ক্লাব। মাত্র ৪ বছরেই ভারতীয় ফুটবলে নিজেদের জন্য আলাদা জায়গা করে নিয়েছিল মিনার্ভা পাঞ্জাব এফসি। ইতিমধ্যে একবার আই লিগও জিতেছে তাঁরা। কিন্তু ক্লাবের সঙ্গে ফেডারেশনের অসহযোগিতা এবং আইএমজি-রিলায়েন্স ও এফএসডিএলের বিরুদ্ধ ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনে ক্লাব বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিলেন মালিক রঞ্জিত বাজাজ। শুক্রবার টুইটারে নিজেই একথা জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন:  সুনীলদের কোচ হতে আগ্রহী ফ্রান্সকে বিশ্বকাপের ফাইনালে তোলা দমেনেখ]

ফেডারেশনের সঙ্গে রঞ্জিতের বিবাদের সূত্রপাত রিয়েল কাশ্মীর ম্যাচ থেকে। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে কাশ্মীরে খেলতে যেতে অসম্মত হয় মিনার্ভা। কিন্তু ফেডারেশন, রঞ্জিত বাজাজের সেই যুক্তি খারিজ করে দেয় এআইএফএফ। উলটে রিয়েল কাশ্মীরকে ওয়াকওভার দিয়ে দেওয়া হয়। ফেডারেশনের সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয় মিনার্ভা। কিন্তু, তাতেও লাভ হয়নি। রঞ্জিত বাজাজের মনে ক্ষোভ তখনই জমা হয়েছিল। সেই ক্ষোভ আরও বাড়ল এএফসি কাপ খেলার জন্য স্টেডিয়াম না পাওয়ায়।

গত মরশুমের আই লিগ চ্যাম্পিয়নরা এবছর এএফসি কাপে খেলার জন্য ওড়িশার কলিঙ্গ স্টেডিয়ামকে হোম ভেন্যু হিসেবে চেয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে খেলার অনুমতি পায়নি মিনার্ভা। কারণ, হিসেবে বলা হয় স্টেডিয়ামে রক্ষণাবেক্ষণার কাজ হবে। তাই, এখন খেলার অনুমতি দেওয়া যাবে না। রঞ্জিত বাজাজের অভিযোগ, এর পিছনেও কলকাঠি নাড়ছে এফএসডিএল এবং আইএমজি-আরের জোট।

[আরও পড়ুন: সুপার কাপ বিতর্ক এড়িয়ে প্রদর্শনী ম্যাচ খেলতে বাংলাদেশ যাচ্ছে ইস্টবেঙ্গল]

শুক্রবার তিনি জানিয়ে দেন, গভীর দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি, ৪ বছরে মোট ৬টি চ্যাম্পিয়নশিপ জেতা ক্লাবের ভবিষ্যতও আর পাঁচটা ক্লাবের মতোই হচ্ছে। আমি বাধ্য হচ্ছি মিনার্ভা পাঞ্জাব বন্ধ করতে। ফুটবল বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, একের পর এক ক্লাবের বন্ধ হয়ে যাওয়া ভারতীয় ফুটবলের জন্য মোটেই ভাল খবর নয়। এমনিতেই রুগ্ন হয়ে যাওয়া ভারতীয় ফুটবল আরও অন্ধকারের দিকেই এগোচ্ছে।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং