৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কেরালার জার্সিতে পারেননি, এবার এটিকে–মোহনবাগানের হয়ে স্বপ্নপূরণ করতে চান সন্দেশ ঝিঙ্ঘান

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: November 19, 2020 2:34 pm|    Updated: November 19, 2020 3:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ যে দলের এতদিন ডিফেন্স সামলাতেন, সেই দলের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই শুক্রবার এবারের ISL অভিযান শুরু করছেন এটিকে–মোহনবাগানের (ATK-Mohunbagan) ডিফেন্সের অন্যতম স্তম্ভ সন্দেশ ঝিঙ্ঘান (Sandesh Jhingan)। ভারতীয় ফুটবলের ডিফেন্ডার সন্দেশ এতদিন আইএসএল খেলে এসেছেন কেরালা ব্লাস্টার্সের হয়ে। এই প্রথম দলবদল করে তিনি নামবেন সবুজ–মেরুন জার্সি পরে। প্রথম ম্যাচে নামার আগে অবশ্য নিজের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করে নিয়েছেন সন্দেশ। কিন্তু সেই লক্ষ্যে পৌঁছনোর পথে তাঁর প্রথম বাধা পুরনো ক্লাবই।

এই প্রসঙ্গে সন্দেশ জানান, ‘‌‘‌কেরালা আমার পুরনো ক্লাব। সেই টিমের বিরুদ্ধে খেলতে নামব বলে বেশি টেনশনে রয়েছি তা নয়। বরং আমি অনেক বেশি উত্তেজিত বহুদিন পরে আবার মাঠে নামতে পারব। আর প্রথম ম্যাচে লক্ষ্যের কথা যদি বলেন তাহলে বলব তিন পয়েন্ট পাওয়ার লক্ষ্য নিয়েই আমরা মাঠে নামব। তবে শুধু কেরালা নয়, সব ম্যাচে লক্ষ্য থাকবে জিতে মাঠ থেকে বেরনো।’‌’‌‌

[আরও পড়ুন:‌ অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগে জোড়া সুখবর! ফিট হচ্ছেন ইশান্ত, নেটে অনুশীলন শুরু ঋদ্ধিরও]

আসলে দু’‌বার ফাইনালে উঠেও চ্যাম্পিয়ন না হওয়ার আফসোস সবসময় রয়েছে তাঁর। সেই দুঃখ এখনও ভুলতে পারেননি। তাই এটিকে–মোহনবাগানের হয়ে ট্রফি জিতে সেই দুঃখ ভোলাতে চান তিনি। সন্দেশের কথায়, ‘‌‘‌দু’‌বার ফাইনালে উঠে জিততে না পারলে কষ্ট পাওয়াটা খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। এটিকে–মোহনবাগানে এসেছি চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেই যন্ত্রণা দূর করতে। সেই সঙ্গে আরও দু’‌টো লক্ষ্যও আছে। এক, ফের লিগ টেবিলের শীর্ষে থেকে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করা। দুই , এবার এএফসি কাপ জেতা।’‌’‌

এদিকে, দর্শকশূন্য অবস্থায় ম্যাচ ছাড়াও রয়েছে আরও চমক। সেটা হল, করোনা আবহে (Corona Pandemic) নিজেদের যতটা সম্ভব নিরাপদ রাখার জন্য ম্যাচের শুরুতে দুটো দল আর একসঙ্গে মাঠে নামবে না। সেটাও না হয় মানা গেল। কিন্তু ম্যাচের শুরুতে বরাবর দেখা পরিচিত দৃশ্য, মাঠের বাইরে একটা স্ট্যান্ডের উপর রাখা বলটা তুলে নিয়ে সহকারি রেফারিদের নিয়ে মাঠে প্রবেশ করেন রেফারি। সেই দৃশ্যও যে এবার আর দেখা যাবে না। তাহলে?

[আরও পড়ুন:‌ রাজনৈতিক সংকটে ISL! টিম বাস আটকে বিক্ষোভ কংগ্রেসের, টুর্নামেন্ট পণ্ড করার হুমকি]

শুক্রবার প্রথম ম্যাচে নামছে এটিকে মোহনবাগান এবং কেরালা ব্লাস্টার্স (Kerala Blasters)। এটিকে মোহনবাগানের যেহেতু অ্যাওয়ে ম্যাচে, তাই দলবল নিয়ে প্রথম মাঠে নামবেন রয় কৃষ্ণরা। সবুজ–মেরুনের শেষতম ফুটবলার মাঠের ভেতর ঢুকে যখন লাইনে দাঁড়াবেন, তখন মাঠের বাইরে থেকে রওনা দেবেন কেরালা ব্লাস্টার্সের প্রথম ফুটবলার। সব ফুটবলার ঢুকে যাওয়ার পর রেফারিদের নিয়ে মাঠে ঢোকার জন্য রওনা দেবেন ম্যাচ কমিশানার। এবার প্রশ্ন, বলটা তাহলে রেফারির হাতে পৌঁছবে কী ভাবে? ঠিক হয়েছে, একটি রিমোট কন্ট্রোল ছোট গাড়ি এই সময় মাঠে ঢুকবে। ফোর্থ অফিসিয়ালের পিছনে দাঁড়িয়ে চালনা করবেন আইএসএলের এক কর্তা। সেই রিমোট কন্ট্রোলের গাড়িতেই থাকবে ম্যাচ বল। যা সোজা যাবে রেফারির কাছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement