BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ডার্বির আগে মোহন-ইস্ট সমর্থকদের বিশেষ বার্তা ব্যারেটোর

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: December 11, 2018 5:41 pm|    Updated: December 11, 2018 5:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছোটদের ডার্বিতে উত্তপ্ত হয়েছিল ময়দান। অনূর্ধ্ব ১৮ আই লিগ ডার্বির প্রথম লেগ সংঘাতে জড়িয়েছিলেন দুই দলের সমর্থকরা। ফিরতি লেগে আবার ইস্টবেঙ্গল ভক্তদের অভব্যতায় জখম হয়েছিলেন সাংবাদিকরা। তাই ফুটবলপ্রেমীরা চাইছেন বড়দের ডার্বিতে যেন কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি না তৈরি হয়। আগামী ১৬ ডিসেম্বরই আই লিগের প্রথম ডার্বি যুবভারতীতে। আর তাই তার আগে দুই দলের সমর্থকদের উদ্দেশেই বিশেষ বার্তা দিলেন মোহনবাগানের ‘সবুজ-তোতা’ হোসে ব়্যামিরেজ ব্যারেটো।

ফেসবুকে মোহনবাগানের তিনি লিখেছেন, “কলকাতা ডার্বিতে খেলা যে কোনও ফুটবলারের জীবনের বড় প্রাপ্তি। এমন একটা পরিবেশ কোনওভাবেই মিস করবেন না। তবে ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান দুই দলের সমর্থকদের কাছেই আমার অনুরোধ, মাঠে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রেখে সুন্দর ফুটবলটা উপভোগ করুন। লড়াইটা ৯০ মিনিটের। দিনের শেষে ফুটবলের মুখে যেন হাসি ফোটে।”

[অ্যাডিলেডে ইতিহাস গড়েও মাঠের বাইরে উচ্ছ্বাস দেখালেন না কোহলিরা]

আসন্ন ডার্বি নিয়ে ইতিমধ্যেই সরগরম হয়ে উঠেছে ময়দান। ছুটির দিনে যে ফের বড় ম্যাচে কানায়-কানায় পরিপূর্ণ হবে যুবভারতীর গ্যালারি, তা বলাই বাহুল্য। তবে ডার্বির আগে চোট নিয়ে চিন্তায় রয়েছে দুই শিবির। সবুজ-মেরুন সমর্থকদের আশা-ভরসার কেন্দ্রবিন্দুতে সোনি নর্ডি। কিন্তু সেই হাইতিয়ান স্ট্রাইকার আদৌ ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে মাঠে নামতে পারবেন কিনা, এখনও স্পষ্ট নয়। নিজের জন্য, ক্লাবের জন্য এবং সমর্থকদের জন্য তিনি মিস করতে চাইছেন না ডার্বি। বাঁ পায়ের থাই মাসলে ‘টিয়ার’ সোনির। তাই মাঠে নামলেও কতক্ষণ খেলতে পারবেন তা নিয়েও ধন্দ রয়েছে।

[অ্যাডিলেডে রেকর্ড ঋষভের, ভারত জিতলেও মন খারাপ ইশান্তের]

ইস্টবেঙ্গলের ছবিটা আবার বেশ অদ্ভুত। একদিকে স্বস্তি কিন্তু অন্যদিকে চিন্তার মেঘ। স্প্যানিশ উইঙ্গার অ্যান্টনিও রডরিগেজ ডোভালের সঙ্গে চুক্তি পাকা হওয়ার দিনই পাঁজরের চোটে ছয় থেকে আট সপ্তাহ মাঠের বাইরে চলে গেলেন এনরিকে এসকুয়েডা। ফলে ফের দল সাজানো নিয়ে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে কোচ আলেজান্দ্রো মেনেজেসকে। এদিকে জানা গিয়েছে, আরেক বিদেশি কোলাডোর আইআরটিসি আসতে এখনও সময় লাগবে। তবে অ্যান্টোনিওকে (টনি) বড় ম্যাচে খেলানোর যথাসম্ভব চেষ্টা চালাচ্ছে ইস্টবেঙ্গল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement