BREAKING NEWS

১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ মে ২০২০ 

Advertisement

আর্থিক সমস্যা চরমে, নিজের ক্লাব ইউনাইটেড সিকিম বন্ধ করলেন বাইচুং

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 23, 2019 3:56 pm|    Updated: September 23, 2019 3:57 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: কিছুদিন আগেই নির্মল ছেত্রীর নেতৃত্বে সিকিম ফুটবল প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশেনর প্রতিবাদে অনিয়মের জন্য এবারের মতো বন্ধ হয়ে গিয়েছে সিকিম প্রিমিয়ার লিগ। তার মধ্যেই রবিবার ফুটবলপ্রেমীদের জন্য এল আরও এক দুঃসংবাদ। আর্থিক সমস্যার কারণে ইউনাইটেড সিকিম ক্লাব বন্ধ করে দিলেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক বাইচুং ভুটিয়া।

[আরও পড়ুন: অপ্রতিরোধ্য ভারত, অনূর্ধ্ব-১৬ এএফসি কাপের মূল পর্বে খেলার হ্যাটট্রিক করল খুদেরা]

সিকিম লিগে তাঁর দল না খেললেও গ্রাসরুট প্রোগ্রামের কাজ আগের মতোই চালানো হবে। ফুটবল কেরিয়ারের একেবারে শেষ প্রান্তে এসে ইউনাইটেড সিকিম ক্লাব খোলেন বাইচুং। এমনকী দ্বিতীয়বারের চেষ্টায় দলকে আই লিগের মূপর্বেও নিয়ে যান। এই মুহূর্তে জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য স্টপার সন্দেশ উঠে আসেন বাইচুংয়ের ক্লাবে খেলেই। ঠিক তারপর থেকেই শুরু হয়ে যায় আর্থিক সমস্যা। প্রথম বছর স্পনসর পেলেও আই লিগ থেকে নেমে যাওয়ার পর আর স্পনসর পাওয়া যায়নি। স্থানীয় লিগে খেললেও ধীরে ধীরে জুনিয়র ফুটবলারদের নিয়ে দল তৈরি শুরু হয়।

এই মরশুমে যখন লিগে খুব খারাপ অবস্থার মধ্যে পড়তে হয় তখন মাঠে নেমে গোল করে দলকে বাঁচান বাইচুং। শেষে লিগ বন্ধ হয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্লাব বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি। সিকিম থেকে বাইচুং ফোনে বলছিলেন, “একার পক্ষে ক্লাব চালানো আর সম্ভবও হচ্ছিল না। তবে আগের মতোই ক্লাবের গ্রাসরুট প্রোগ্রাম চলবে। তাছাড়া এখন আমি নিজেই সিকিম ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনে আছি। এই অবস্থায় আমার নিজের ক্লাব সিকিম লিগে খেললে অনেকে স্বার্থ সংঘাতের অভিযোগও তুলতে পারেন। তাই ক্লাব বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম।” স্বাভাবিকভাবেই ময়দান থেকে আরও একটা নাম হারিয়ে যাওয়ায় মন খারাপ ফুটবল মহলের।

[আরও পড়ুন: ব্যর্থ তরুণরা, বেঙ্গালুরুতে প্রোটিয়াদের কাছে লজ্জার হার ভারতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement