৩ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ২১ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

মোহনবাগান: ১ (গঞ্জালেজ) 

কাস্টমস: ১ (স্ট্যানলি)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  কাজে এল না গঞ্জালেজের বিশ্বমানের গোল। কলকাতা লিগের দ্বিতীয় ম্যাচেও হোঁচট খেল মোহনবাগান। কলকাতা কাস্টমসের বিরুদ্ধে ১-১ গোলে ড্র করে লিগে প্রথম পয়েন্ট পেলেও, এদিন মোহনবাগানের খেলা মোটেই পছন্দ হয়নি সমর্থকদের।

[আরও পড়ুন: অজানা আশঙ্কায় ভুগছে ইস্টবেঙ্গল, লিগের ভুল ডুরান্ডে করতে চান না আলেজান্দ্রো]

স্প্যনিশ কোচ, স্প্যানিশ ফুটবলার, এই স্প্যানিশ আর্মাডার কাছ থেকে স্পেনের ঘরানার ফুটবল উপহার চেয়েছিলেন সমর্থকরা। ডুরান্ড কাপের প্রথম ম্যাচে শুরুটা ভালই করেছিল সবুজ মেরুন শিবির। কিন্তু ডুরান্ডে ভাল খেললেও কলকাতা লিগের প্রথম ম্যাচে হোঁচট খেতে হয়েছে মোহনবাগানকে। লিগের দ্বিতীয় ম্যাচেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল। ছন্দহীন ফুটবল খেলে দুর্বল কাস্টমসের কাছেও আটকে গেল সবুজ মেরুন শিবির।

[আরও পড়ুন: লাল-হলুদ জার্সি গায়ে পরোক্ষে তথাগত রায়কে খোঁচা মীরের!]

এদিন ম্যাচের শুরুটা অবশ্য ভালই করে মোহনবাগান। রক্ষণ জমাট রেখে ধীরে ধীরে আক্রমণে এগোচ্ছিল সবুজ-মেরুন জার্সিধারীরা। মাঝমাঠে বল দখলেও কাস্টমসকে টেক্কা দিয়েছিল সবুজ মেরুন শিবিরই। সেই ফলও মিলল হাতেনাতে। ম্যাচের ২১ মিনিটেই বল ঢুকল কাস্টমসের জালে।  সৌজন্যে মোহনবাগানের স্প্যানিশ ফুটবলার গঞ্জালেস। বক্সের ঠিক বাইরে থেকে রকেট গতির শটের নাগাল পাননি কাস্টমসের গোলকিপার। এরপর অবশ্য বেশ কয়েকটা সুযোগ তৈরি করেও কাজে লাগাতে পারেনি মোহনবাগান। কয়েকটি সুযোগ তৈরি করেছিল কাস্টমসও। কিন্তু, গোলরক্ষক শংকর রায়ের তৎপরতায় রক্ষা পায় মোহনবাগান।  কিন্তু, ৬২ মিনিটে কিমকিমা লাল কার্ড দেখার পরই বদলে যায় খেলার গতি। একের পর আক্রমণ শানাতে থাকে কাস্টমস। ৮২ মিনিটে লালকার্ড দেখেন কাস্টমসের দেবায়ন সাহাও। তারপরও আক্রমণ অব্যাহত রাখে কাস্টমস। ফল মেলে খেলার একেবারে শেষ মিনিটে। স্ট্যানলির দুর্দান্ত গোলে কাস্টমস সমতা ফেরায় ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং