৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

মোহনবাগান: ২ (চামোরো)
মহামেডান: ০

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১২৯তম ডুরান্ড কাপ দিয়েই কলকাতা ময়দানে অভিযান শুরু কোচ কিবু ভিকুনার। আর যাত্রার শুরুতেই মিলল সাফল্য। যুবভারতীতে মোহনবাগানেরই ঘরের ছেলে সুব্রত ভট্টাচার্যের দলকে হারিয়ে মরশুম শুরু করল সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। বাগান জার্সি গায়ে প্রথম ম্যাচেই জোড়া গোল করে নজর কাড়লেন চামোরো।

ম্যাচের আগে দুই শিবিরে দুই কোচের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখে মনে হয়েছিল মহামেডানের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে বেশি সাবধানী মোহনবাগান কোচ ভিকুনাই। বরং অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন সুব্রত ভট্টাচার্য। তাঁর চেনা মাঠ। গ্যালারির পরিবেশও চেনা। উলটোদিকে কিবুর কাছে সবটাই নতুন। শুধু তিনি কেন, বাগানের বিদেশিদের কাছেও কলকাতার ফুটবল পরিবেশ অপরিচিত। কিন্তু আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে দলগতভাবে খেলেই মিনি ডার্বি জিতে নিল গঙ্গাপারের ক্লাব।

[আরও পড়ুন: কোহলির ‘স্কোয়াডে’ নেই রোহিত! নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখে ভারত অধিনায়ক]

এদিন খেলার প্রথমার্ধেই জোড়া গোলে এগিয়ে যায় বাগান। দুমিনিটের মাথায় বেইতিয়ার ফ্রি-কিক চামোরোর মাথা ছুঁয়ে মহামেডানের জালে জড়িয়ে যায়। ২১ মিনিটে ফের ব্যবধান বাড়ান স্প্যানিস স্ট্রাইকার। আশুতোষের সেন্টার থেকে এবারও হেডে গোল করেন তিনি। এদিকে এদিন ফ্রান গঞ্জালেজ প্রথম থেকে খেলবেন কিনা, তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল। খেলার শুরুতে দেখা গেল, প্রথম একাদশে ফ্রান মোরান্ত, বেইতিয়া ও চামোরোকে নিয়েই দল সাজিয়েছেন কিবু। আর বাকিদের ছাপিয়ে এদিন বাগান সমর্থকদের নয়ণের মণি হয়ে উঠলেন স্প্যানিশ তারকা চামোরোও। তবে শুধু ম্যাচ জয়ই না, কিবুকে স্বস্তি দিচ্ছে আরও একটি বিষয়। মহামেডানের মতো শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে একটিও গোল হজম না করা। অর্থাৎ বাগান ডিফেন্স ভাঙা যে সহজ হবে না, ডুরান্ডের শুরুতেই তা বুঝিয়ে দিলেন সবুজ-মেরুন ডিফেন্ডাররা। পরের ম্যাচে এটিকে-র বিরুদ্ধে নামার আগে এই জয়ই নিঃসন্দেহে আত্মবিশ্বাস জোগাবে গোটা দলকে।

 

[আরও পড়ুন: বিরাটদের কোচ হওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং