BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

দলের তাঁকে প্রয়োজন নেই, ডিফেন্ডার মার্টিকে জানিয়ে দিলেন ইস্টবেঙ্গলের নয়া কোচ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 11, 2020 11:54 am|    Updated: February 11, 2020 11:54 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: দলে আর রাখা হবে না তাঁকে। স্টপার ক্রেসপি মার্টিকে জানিয়ে দিলেন ইস্টবেঙ্গল কোচ মারিও। ফলে সোমবার প্র‌্যাকটিসেই এলেন না স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

বিদায়ী কোচ আলেজান্দ্রোকে বারবার ফুটবলার বদল করার কথা বললেও কর্তাদের কথায় কান দেননি তিনি। বিশেষ করে মার্টি আর মার্কোসকে নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্য করেননি। যা নিয়ে ইস্টবেঙ্গলে প্রবল সন্দেহের বাতাবরণ তৈরি হয়। মারিও কোচ হয়ে এসেই বুঝে যান, এই দলে মার্টির কোনও জায়গা নেই। আসল সমস্যা ডিফেন্সে। স্ট্রাইকার মার্কোসের পারফরম্যান্সেও খুশি নন তিনি। কিন্তু স্ট্রাইকার বদলের থেকে আগে ডিফেন্ডার বদলের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন তিনি। তাই দু’দিন প্র‌্যাকটিসের পরই স্প্যানিশ ডিফেন্ডারকে নতুন কোচ জানিয়ে দেন, এই দলে তাঁর আর জায়গা নেই।

[আরও পড়ুন: আইপিএলের আগে ফের রদবদল নাইট শিবিরে, নতুন ফিল্ডিং কোচ পেল কেকেআর]

তিনি যে আর এই দলে থাকবেন না বুঝতে পেরেই রবিবার ক্লাব কর্তাদের আয়োজিত লাঞ্চে যাননি তিনি। এমনকী কোচও তাঁকে ক্লাবের দেওয়া লাঞ্চে যোগ দেওয়ার জন্য জোর করেননি। ফলে তখনই ঠিক হয়ে যায়, স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের বদলি ফুটবলার খুব শীঘ্রই আসতে চলেছেন ক্লাবে।

কোচের থেকে বাদ পড়ার ইঙ্গিত পেয়েই সোমবার সকালে প্র‌্যাকটিসে আসেননি তিনি। এরপরেই মার্টির সঙ্গে আলোচনায় বসে পড়েন কর্তারা। পুরো মরশুমের চুক্তি ভাঙার জন্য মার্টির কি দাবি রয়েছে, তা নিয়েই আলোচনা চলছে দু’পক্ষের। তাই এখনই বলা যাচ্ছে না, মার্টির বিদায় সরকারিভাবে কবে ঘোষণা হবে কোয়েসের পক্ষ থেকে। তবে বসে নেই কোয়েস এবং ক্লাব কর্তৃপক্ষ। নতুন ডিফেন্ডার আনার জন্য আলোচনা চলছে। কবে আসবেন নতুন ডিফেন্ডার, সেটাও এখনও জানা যায়নি। এসবের মধ্যেই সোমবার ট্রায়ালে নেমে পড়েন ইস্টবেঙ্গলে খেলে যাওয়া গুরবিন্দর সিং। প্রথম দিন প্র‌্যাকটিসের পর গুরবিন্দরের ব্যাপারে টিম ম্যানেজমেন্টের ধারণা হল, প্রথম দলে আসতে হলে ফিটনেস আরও বাড়াতে হবে। ফলে আই লিগের পরের ম্যাচগুলোর জন্য মারিও এখনই গুরবিন্দরকে ভেবে দল তৈরি করছেন না। মারিওর এখন প্রাথমিক লক্ষ্যই, যেভাবেই হোক পরের ম্যাচগুলি জিতে আই লিগ টেবিলে দলকে কিছুটা উপরে নিয়ে যাওয়া। পরপর হেরে ফুটবলারদের মনোভাব তলানিতে ঠেকেছে। সেখান থেকে বের করার জন্য প্র‌্যাকটিসে ফুটবলারদের পেপটকও দেন কোচ।

[আরও পড়ুন: দিদির মৃত্যুসংবাদও দমাতে পারেনি, দাঁতে-দাঁত চেপে আকবরের বিশ্বজয়ের কাহিনিকে স্যালুট]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement