২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

বল বয়ের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের জেরে সাসপেন্ড কোলাডো, ইস্টবেঙ্গলে বজ্রপাত

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: December 12, 2019 5:09 pm|    Updated: December 12, 2019 5:09 pm

An Images

ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার: জয়ের উল্লাসে মেতে উঠেছে পুরো দল। প্রথম জয় পাওয়ার সুবাদে লিগ টেবিলে এখন অনেকটাই উপরে চলে এসেছে লাল-হলুদ। পুরো শিবিরে এখন ‘ফিল গুড’ পরিবেশ। ঠিক তখনই ইস্টবেঙ্গলে বজ্রপাত। কোলাডো চলে গেলেন সাসপেনশনের আওতায়। ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনি খেলতে পারবেন না। ডিসিপ্লিনারি কমিটি জানিয়ে দিয়েছে, শো-কজের জবাব তাঁকে দিতে হবে ১৩ তারিখের আগে। ২০ তারিখে কলকাতায় ডিসিপ্লিনারি কমিটির সভা বসবে। সেই সভার পর ঠিক হবে শাস্তির মেয়াদ আরও বাড়ানো হবে কি না।

নেরোকাকে হারানোর পর দলের মানসিকতায় ব্যাপক পরিবর্তন ঘটে গিয়েছে। পুরো দল এখন উজ্জীবিত। সেই সময় কোলাডোর সাসপেনশন বিনামেঘে বজ্রপাতের মতো ঘটনা ইস্টবেঙ্গল শিবিরে। দলের প্রাণভোমরা হলেন কোলাডো। অথচ তিনি কিনা খেলতে পারবেন না তা কারও পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। কোচ আলেজান্দ্রোর বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ক্লাব সূত্রের খবর, কেউ বিষয়টাকে খোলা মনে মেনে নিতে পারছেন না। কিন্তু কোন কারণে কোলাডোকে এমন কঠিন শাস্তি দেওয়া হল? কোয়েসের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, পাঞ্জাব এফসির সঙ্গে খেলার সময় কোলাডোর আচরণ মোটেই ভাল ছিল না। তারজন্য তাঁকে সাসপেন্ড করতে বাধ্য হয়েছে ডিসিপ্লিনারি কমিটি।

[আরও পড়ুন: হতাশা ঝেড়ে দুরন্ত ফুটবল, আই লিগের প্রথম জয় মোহনবাগানের]

প্রশ্ন হল, বাজে আচরণ করলেন কোথায়? শোনা যাচ্ছে, ম্যাচের পর বল বয়দের সঙ্গে বিশ্রী ব্যবহার করেছিলেন স্প্যানিশ তারকা। তাই সেদিনের ম্যাচ রেফারি উমেশ বোরা লিখিতভাবে জানিয়েছেন, কোলাডোর আচরণ তাঁরা খোলা মনে মেনে নিতে পারছেন না। তাঁকে যেন শাস্তি দেওয়া হয়। রেফারিজ রিপোর্ট জমা পড়ার পর ডিসিপ্লিনারি কমিটি কোলাডোকে শাস্তি দেওয়ার জন্য সুপারিশ করেছে। সেই সুপারিশের ভিত্তিতেই ২০ তারিখ পর্যন্ত তিনি খেলতে পারবেন না। যদিও এই সময়ের মধ্যে কেবলমাত্র একটা ম্যাচ থাকছে ইস্টবেঙ্গলের। প্রতিপক্ষ ট্রাউ। কোলাডোহীন ইস্টবেঙ্গলের পক্ষে কল্যাণীতে এই ম্যাচ জেতা অসম্ভব নয়।

প্রশ্ন হল, ডার্বিতে কি কোলাডো খেলবেন না? যদিও সেই সম্ভাবনার কথা কেউ ভাবছেন না। লাল-হলুদ শিবিরের ধারণা, ২২ তারিখের ডার্বিতে খেলতে পারবেন। শো-কজের জবাবে ধরেই নেওয়া যায় নিঃশর্তে ক্ষমা চেয়ে নেবেন কোলাডো। তারপর ২০ তারিখে কলকাতায় বসবে ডিসিপ্লিনারি কমিটির সভা। সেই সভায় নিজের দোষ স্বীকার করে নিলে মনে হয় না কোলাডোকে বড় শাস্তির মুখে পড়তে হবে। তাই ডার্বিতে তাঁর খেলা নিয়ে তেমন সংশয় নেই। তবে উল্টো ঘটলে সমস্যায় পড়ে যাবে ইস্টবেঙ্গল। কোলাডোর মতো ফুটবলারকে বাদ দিয়ে ম্যাচ জেতা সত্যিই কঠিন।

[আরও পড়ুন: খারাপ পারফর‌ম্যান্সের দায় ম্যানেজমেন্টের! নেরোকা ম্যাচের আগে তোপ আলেজান্দ্রোর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement