০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ উদযাপনে দিনভর অনুষ্ঠান, চাঁদের হাট বসবে নেতাজি ইন্ডোরে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 31, 2019 8:27 pm|    Updated: August 1, 2019 12:28 pm

East Bengal planning mega celebration at hundred years eve

দুলাল দে: কেউ বলছেন ঔদ্ধত্যের শতবর্ষ, আবার কেউ বলছেন স্পর্ধার শতবর্ষ। সমসাময়িক বা পরবর্তীকালের অনেক ক্লাব ময়দান থেকে হয় চিরতরে উধাও হয়ে গিয়েছে আর নাহয় জৌলুস হারিয়ে অস্তিত্বের জন্যে সংগ্রাম করছে। কিন্তু, ইস্টবেঙ্গল এখনও সগৌরবে এগিয়ে চলেছে। সমর্থকদের হৃদয়ে চিরস্থায়ী জায়গা করে নিয়েছে লেসলি ক্লডিয়াস সরণি। বাঙালির চিরন্তন ঘটি-বাঙালের দ্বন্দ্বে নয়া মাত্রা যোগ করেছে ইস্টবেঙ্গলের আগমন। স্বাভাবিকভাবেই, এ হেন ক্লাবে শতবর্ষের উদযাপনটাও জাঁকজমক করেই হবে। সেই লক্ষ্যে আয়োজনের কোনও ত্রুটি করেননি কর্তারা।

[আরও পড়ুন: ‘তুমি মোহনবাগান পরিবারেরই সদস্য’, ব্যারেটোর কাছে দুঃখপ্রকাশ টুটু বোসের]


বৃহস্পতিবার শতবর্ষ উদযাপনের অনুষ্ঠানকে মূলত তিনটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। প্রথমেই সকাল ৯টার সময় ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সুরেশ চৌধুরির বাড়িতে যাবেন কর্তারা। তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে বিশেষ সম্মাননা। যাওয়া হবে ক্লাবের প্রয়াত তিন সচিব জে সি গুহ, নিরুপম দাস এবং দীপক দাস(পল্টু)-এর বাড়িতেও। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বটি সংক্ষিপ্ত। সেটা হবে ক্লাব তাঁবুতে। দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ ক্লাব তাঁবুতে লাল-হলুদ পতাকা উত্তোলন করা হবে। উপস্থিত থাকবেন কর্তা-ব্যক্তিরা।

মূল অনুষ্ঠানটি হবে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে। বিকেল সাড়ে ৩টের সময় খোলা হবে নেতাজি ইন্ডোরের গেট। ‘আগে গেলে আগে পাবেন’- এই ভিত্তিতে যে কেউ প্রবেশাধিকার পাবেন নেতাজি ইন্ডোরে। কোনও টিকিট কাটার প্রয়োজন নেই। মূল অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। প্রদীপ প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হাজির করার চেষ্টা চলছে। তা যদি সম্ভব না হয়, তাহলে প্রদীপ জ্বালিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করবেন ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এবং কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এরপর একটি সাংবাদিক বৈঠক করবেন কপিল দেব, সুনীল ছেত্রী, বাইচুং ভুটিয়া, ভাস্কর গঙ্গোপাধ্যায়, মনোরঞ্জন ভট্টাচার্যের মতো পুরস্কার প্রাপকরা।

[আরও পড়ুন: মোহনবাগান দিবসে মেলেনি আমন্ত্রণ, ফেসবুকে আক্ষেপ অভিমানী ব্যারেটোর]

এরপর হবে পুরস্কার বিতরণী । শতবর্ষে ‘ভারত গৌরব’ সম্মান পাচ্ছেন বিশ্বকাপজয়ী ভারত অধিনায়ক কপিল দেব। পিকে বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেওয়া হবে ‘কোচ অব কোচেস’ সম্মান। শতবর্ষে জীবনকৃতি সম্মান দেওয়ার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে দুই প্রাক্তন ফুটবলার মনোরঞ্জন ভট্টাচার্য এবং ভাস্কর গঙ্গোপাধ্যায়কে। এবছরের বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন লালডানমাওয়াইয়া রালতে। সংবাদ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক গৌতম ভট্টাচার্য এবং প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকার এবং ফুটবল লিখিয়ে নোভি কাপাডিয়া, এই দুই বরেণ্য সংবাদিককে সম্মান জানানো হবে। সংবর্ধনা দেওয়া হবে দুই রেফারি রণাঙ্কুর ঘোষ এবং সুনীল মল্লিককে। বিশেষ সম্মান দেওয়া হবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে।  ‘শতবর্ষের সেরা আবিষ্কার’ খেতাব পাবেন বাইচুং ভুটিয়া। সম্মাননা দেওয়া হবে ভারতীয় ফুটবল দলের বর্তমান অধিনায়ক সুনীল ছেত্রীকেও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে