BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গোয়াতেই দর্শকশূন্য মাঠে হবে এবারের ISL, ভোল পালটে যাচ্ছে এই তিন স্টেডিয়ামের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: August 16, 2020 6:52 pm|    Updated: November 13, 2020 12:19 pm

An Images

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে দেশের বিভিন্ন শহরে গিয়ে নয়, একটি ভেন্যুতে থেকেই আইএসএল (ISL) খেলবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি। আর সেই ভেন্যুটি হবে গোয়া। আগেই একপ্রকার এমনটা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। এবার তাতে পড়ল সরকারি সিলমোহর। FSDL-এর তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, গোয়াতেই আয়োজিত হতে চলেছে আইএসএলের ২০২০-২১ মরশুম।

করোনার জেরে দেশের বাইরে চলে গিয়েছে আইপিএল। এবার এই মারণ ভাইরাসের দাপটের জন্য ঘরের মাঠে খেলার সুযোগ পাবে না আইএসএলের দলগুলিও। অর্থাৎ যুবভারতীর গ্যালারিতে বসে প্রথমবার এটিকে-মোহনবাগানের (ATK-Mohun Bagan) খেলা দেখা হবে না ফুটবলপ্রেমীদের। ফুটবলার, সাপোর্ট স্টাফ এবং টুর্নামেন্টের সঙ্গে জড়িত সকলের সুরক্ষার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত। চলতি বছর নভেম্বরে তাই গোয়াতেই হবে দেশের সেরা লিগ। করোনার দৌলতে দেশের ফুটবল ডেস্টিনেশন হয়ে উঠবে এই সৈকত শহরই।

[আরও পড়ুন: জানেন, ১৫ আগস্ট সন্ধে ঠিক ৭টা ২৯ মিনিটেই কেন অবসরের সিদ্ধান্ত নিলেন ধোনি?]

আইএসএলের তরফে রবিবার জানিয়ে দেওয়া হল তিনটি স্টেডিয়ামে দর্শকশূন্য ম্যাচের আয়োজন করা হবে। ফাতোরদার জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়াম, বাম্বোলিনের GMC অ্যাথলেটিক স্টেডিয়াম আর ভাস্কোর তিলক ময়দান স্টেডিয়াম। ইতিমধ্যেই ভেন্যুগুলি ঘুরে দেখেছে FSDL-এর (ফুটবল স্পোর্টস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড) একটি প্রতিনিধি দল। এদিন FSDL-এর প্রতিষ্ঠাতা তথা চেয়ারম্যান নীতা আম্বানি বলেন, “আইএসএল ৭ মরশুমকে গোয়ায় হতে চলায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত। গত বছর এখানেই আমরা শেষ করেছিলাম। আশা করি, গোয়ার ফুটবলপ্রেমীরা এমন সিদ্ধান্তে দারুণ খুশি হবেন। মরশুম শুরুর অপেক্ষায় রয়েছি।”

সম্পূর্ণ নিরাপদ এবং স্বাস্থ্যকর পরিবেশে যাতে ম্যাচ আয়োজিত হয়, তার জন্য গোয়ার স্পোর্টস অথরিটি, সে রাজ্যের ফুটবল সংস্থা এবং সরকারের সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করবে FSDL। তিনটি মাঠের জলনিকাশী ব্যবস্থা থেকে ফ্লাডলাইট, ড্রেসিং রুম- সবকিছুই ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা রয়েছে। পাশাপাশি ফুটবলারদের অনুশীলনে যাতে কোনও সমস্যা না হয় তার জন্য দশটি আলাদা মাঠের ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। আগামী একমাসের মধ্যে সেগুলিরও ভোল বদলে যাবে বলেই জানিয়েছে FSDL। এককথায় ফুটবলের উন্নতির ক্ষেত্রে গোয়ার কাছে শাপে বর হয়ে দাঁড়াল করোনা।

[আরও পড়ুন: যত টাকাই লাগুক, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায়ের পর মেসিকে কিনতে মরিয়া এই দল]

এদিকে আবার শোনা যাচ্ছে, বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে হায়দরাবাদ এফসির গাঁটছড়া বাঁধা একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। এতে যে ভারতীয় ফুটবল আরও খানিকটা উন্নতির পথে এগিয়ে যাবে, তা বলাই বাহুল্য।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement