২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

পেনাল্টি সহায়, যুবভারতীতে চার্চিলের বিরুদ্ধে হার বাঁচাল ইস্টবেঙ্গল

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 29, 2020 7:21 pm|    Updated: February 29, 2020 7:36 pm

An Images

ইস্টবেঙ্গল: ১ (কোলাডো)
চার্চিল ব্রাদার্স: ১ (প্লাজা)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি টাইমে বক্সের মধ্যে ক্রোমাকে ফাউল করে বসলেন সুরেশ। পেনাল্টি উপহার পেল ইস্টবেঙ্গল। তাতেই বাঁচল মান। পেনাল্টি কিকের ফিরতি শটে বল জালে জড়ান কোলাডো। আর সেই সঙ্গে কোনওক্রমে ঘরের মাঠে লজ্জার হার থেকে রক্ষা পায় লাল-হলুদ শিবির।

চলতি টুর্নামেন্টে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে ইস্টবেঙ্গলের। ডার্বি-সহ পরপর ম্যাচ হেরে আই লিগ জয়ের স্বপ্ন আগেই শেষ হয়েছে। তবে অবনমনের খাদে না পড়ার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দল। গত দুই ম্যাচ জিতে ফের ছন্দে ফিরছিলেন মারিওর ছেলেরা। কিন্তু এদিন আবার তাল কাটল। শনিবাসরীয় যুবভারতীতে একের পর এক গোলের সুযোগ হাতছাড়া করলেন কোলাডো। প্রথমার্ধে গোলমুখী শট নিলেও স্কোরবোর্ডে বদল ঘটাতে পারেননি। গোলের সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি ক্রোমাও। কোলাডোর পেনাল্টি শটও প্রথমটায় বাঁচিয়ে দিয়েছিলেন প্রতিপক্ষ গোলকিপার। তবে ফিরতি শটে বল জড়িয়ে যায় জালে। আর তাতেই ড্র দিয়ে শেষ হয় খেলা। প্রাক্তনী প্লাজার গোলেই নাহলে পরাস্ত হতে হত দলকে। চিসের ফরোয়ার্ড পাস থেকে মেহতাব সিংকে টপকে ৯ মিনিটের মাথায় গোল করে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন চার্চিল স্ট্রাইকার প্লাজা।

EB-Churchill

[আরও পড়ুন: মহিলা বিশ্বকাপে অপরাজেয় ভারত, গ্রুপের শেষ ম্যাচেও সহজ জয় শেফালিদের]

ঘরের মাঠ হিসেবে আই লিগের ম্যাচগুলি কল্যাণীতেই খেলছিল ইস্টবেঙ্গল। এদিনই যুবভারতীতে নামেন কোলাডোরা। কিন্তু সেই অ্যাডভান্টেজকেও সেভাবে কাজে লাগাতে পারেননি তাঁরা। বরং অনেক বেশি গুছিয়ে খেলল চার্চিল। গোলের সুযোগও তৈরি করেছিল। নিজেদের ঘরের মাঠে ইস্টবেঙ্গলকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল তারা। এবারও প্লাজার গোলে সেদিকেই গড়াচ্ছিল খেলা। তবে শেষমেশ ছবিটা বদলে যায়।

ম্যাচ ড্র হওয়ায় ১৪ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে উঠে এল ইস্টবেঙ্গল। স্বাভাবিকভাবেই যা কিছুটা হলেও দলের জন্য স্বস্তির। তবে এদিন চার্চিল তিন পয়েন্ট না পাওয়ায় সুবিধা হল লিগ তালিকার শীর্ষে থাকা মোহনবাগানের। ১৩ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ হল ২০। মোহনবাগানের থেকে তারা ১২ পয়েন্টে পিছিয়ে। দুয়ে পাঞ্জাব।

[আরও পড়ুন: বিরাট ব্যর্থতা অব্যাহত, কিউয়িদের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টেও চাপে ভারত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement