৩২ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ১৮ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কোপা আমেরিকা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জেরে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে সাময়িকভাবে সাসপেন্ড হতে হল আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসিকে। আগামী ৩ মাস কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারবেন না মেসি। আর্জেন্টিনার অধিনায়ককে নির্বাসিত করেছে লাতিন আমেরিকার ফুটবল সংস্থা CONMEBOL । এখানেই শেষ নয়, সংস্থার বিরুদ্ধে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে লিও-কে দিতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানাও। মোট ৫০ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা দিতে হবে আর্জেন্টিনার অধিনায়ককে।

[আরও পড়ুন: পৃথিবীকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী হাসিনার মদত চাইলেন পেলে]


৩ মাসের নিষেধাজ্ঞার ফলে জাতীয় দলের হয়ে অন্তত ৪টি গুরুত্বপূর্ণ ফ্রেন্ডলি ম্যাচে পাওয়া যাবে না মেসিকে। এর মধ্যে সেপ্টেম্বর মাসেই একটি করে প্রীতি ম্যাচ আর্জেন্টিনা খেলবে মেক্সিকো এবং চিলির বিরুদ্ধে। আরও দুটি ম্যাচ খেলার কথা অক্টোবরে। একটির প্রতিদ্বন্দ্বী জার্মানি। অপরটির প্রতিদ্বন্দ্বী এখনও ঠিক হয়নি। এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে মেসি বা আর্জেন্টিনা চাইলে আবেদন করতে পারে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত CONMEBOL-এর সিদ্ধান্ত নিয়ে সরকারিভাবে মুখ খোলেনি কোনও পক্ষই। উল্লেখ্য, আগামী বছর আয়োজিত হতে চলা বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচে এমনিতেই খেলতে পারবেন না মেসি। কারণ, কোপার শেষ ম্যাচে তিনি লালকার্ড দেখেছিলেন। ফলে, এক ম্যাচের জন্য সাসপেন্ড থাকতে হবে তাঁকে।

[আরও পড়ুন: আবির্ভাবেই সফল কিবু, মহামেডানকে হারিয়ে ডুরান্ড কাপ অভিযান শুরু মোহনবাগানের]

কোপার সেমিফাইনালে হারের পর প্রথমবার রেফারির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন মেসি। তৃতীয় স্থান দখলের ম্যাচে লাল কার্ড দেখার পর সুর আরও চড়ান তিনি। কোপা আমেরিকা কর্তৃপক্ষকে রীতিমতো দুর্নীতিগ্রস্ত বলে দাবি করেছিলেন লিও। ম্যাচ শেষে আর্জেন্টিনার অধিনায়ক স্পষ্ট বলেন, “এবারের কোপায় আমাদের সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে। আমরা ফাইনালে যেতে পারতাম, অন্যায়ভাবে আটকে দেওয়া হয়েছে। এই দুর্নীতিতে আমরা অংশগ্রহণ করতে চাই না। ব্রাজিল যাতে কোপা জিততে পারে তা নিশ্চিত করতেই এমন করছে কর্তৃপক্ষ।” মেসির সেই মন্তব্যের পরই ইঙ্গিত মিলেছিল, বড়সড় শাস্তি পেতে পারেন তিনি। সেই আশঙ্কাই সত্যি হল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং