২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পুরনো কর্তাদের জন্যই আসছে না ইনভেস্টর!‌ মহামেডান তাঁবুতে তুমুল বিক্ষোভ সমর্থকদের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 25, 2020 10:14 pm|    Updated: September 25, 2020 10:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ ইস্টবেঙ্গল (East Bengal), এটিকে মোহনবাগান (ATK-Mohunbagan) দুই প্রধানেই ইনভেস্টর আগে এসেছে। সম্প্রতি মহামেডানেও আসার কথা ছিল নতুন ইনভেস্টরের। কিন্তু পুরনো কয়েকজন কর্মকর্তার চাপে ভেস্তে যায় নব নিযুক্ত ক্লাবকর্তা ওয়াসিম এন্ড কোংয়ের সেই প্রচেষ্টা। মূলত তাঁদের আপত্তিতেই ইনভেস্টর ঘোষণা পিছিয়ে দিতে বাধ্য হন ওয়াসিমরা। আর এই খবর সামনে আসতেই বিক্ষোভে ফেটে পড়লেন মহামেডান সমর্থকরা। শুক্রবার মহামেডান ক্লাব (Mohammedan Sporting) তাঁবু সাক্ষী থাকল সেই বিক্ষোভের।

[আরও পড়ুন: বিরুষ্কাকে নিয়ে ‘অশালীন’ মন্তব্য, বিতর্ক থামাতে অবশেষে মুখ খুললেন গাভাসকর]

আধুনিক ফুটবলে এখন বিশ্বের প্রায় সমস্ত ক্লাবে ইনভেস্টর রয়েছে। ময়দানের দুই শতাব্দীপ্রাচীন ক্লাবেও ইনভেস্টর এসেছে। মহামেডানেও তাই ইনভেস্টর আনতে সচেষ্ট হন ক্লাবের নতুন সচিব ওয়াসিম আক্রাম। আর তাই এক নামী সংস্থার সঙ্গে কথাও বলেন তিনি। কিন্তু হঠাৎই বেঁকে বসেন পুরনো কর্তারা। তাঁদের মতে, ৪৯ শতাংশ শেয়ার দিলে নাকি ক্লাব বিক্রি হয়ে যাবে। এরপর হঠাৎ করেই পুরনো একটি চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে সিবিআই জেরার সম্মুখীন হতে হয় ওয়াসিম আক্রামকে। CBI পুরনো তথ্য জোগাড়ে বেশ কয়েকবার ওয়াসিমকে জেরা করে, স্বভাতই ঘরে–বাইরে জোড়া ফলার আক্রমণে নাজেহাল হয়ে পড়েন নতুন সচিব। এরপরই তাঁর অভিযোগ, ক্লাবে ইনভেস্টর যাতে না আনতে পারেন, তাই এই চক্রান্ত করেছেন পুরনো কর্মকর্তারাই। এমনকী ঘনিষ্ঠ মহলে নিজের পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কথাও জানান।

এদিকে, এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন সমর্থকরা। এদিন কার্যকরী কমিটির সভা চলাকালীনই তাই প্রায় শ’‌পাঁচেক সমর্থক নানারকম প্রতিবাদী ব্যানার নিয়ে হাজির হন। দুপুর বেলায় উত্তাল হয়ে ওঠে ক্লাব তাঁবু।অনেকেই পুরনো ক্লাব কর্তাদের পদত্যাগের দাবি জানান। এই বিক্ষোভ মিছিলে অগ্রনী ভূমিকা পালন করে ‘‌ব্ল্যাক প্যান্থার্স’‌ নামে মহামেডান সমর্থকদের একটি ফ্যান ক্লাব। ব্ল্যাক প্যান্থার্সের পাশাপাশি কলকাতা ফ্যান ক্লাবের আসলাম, নওশাদরাও প্রতিবাদে নেতৃত্ব দেন। যদিও এদিনের বৈঠকে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আগামিকাল ফের কোর কমিটির মিটিং ডাকা হয়েছে। তবে ক্লাব সচিব ওয়াসিম আক্রাম আশ্বাস দেন যে, ক্লাবে ইনভেস্টর আসছেই। এখন দেখার সমর্থকদের এই প্রতিবাদে টনক নড়ে নাকি পুরনো কর্তাদের!

[আরও পড়ুন: দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পুরস্কার, ফেডারেশনের বর্ষসেরা ফুটবলার হলেন গুরপ্রীত সিং সান্ধু]

এদিকে, আইএসএলে ইস্টবেঙ্গল–মোহনবাগানের ডার্বি দেখতে মুখিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় (Babool Supriyo)। এক ভিডিও বার্তায় জানালেন সেকথা।

দেখুন ভিডিও:‌

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement