১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

শুভজিৎ মণ্ডল ও সুলয়া সিংহ: ডার্বির দিন দুয়েক আগেই ঘোষণাটা হয়েছে। এটিকের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধছে মোহনবাগান। শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের ঐতিহ্য আর ইতিহাস অক্ষুণ্ণ রেখেই জুন থেকে একসঙ্গে এটিকে মোহনবাগান এফসি নামে খেলবে দল। ক্লাবকর্তাদের এমন সিদ্ধান্তের অনেক সমর্থক বিরোধিতা করলেও বেশিরভাগই কিন্তু দাঁড়িয়েছে প্রিয় দলের পাশে। তবে কোচ ভিকুনা! তাঁর কী মত এই গাঁটছড়া নিয়ে? ডার্বির আগে মাঠের বাইরের এই বড়সড় ঘোষণা কি ড্রেসিংরুমের হাওয়াও বদলে দিয়েছে?

MB

না, সাংবাদিক সম্মেলনে সরাসরি এনিয়ে কোনও কথা বললেন না বাগান কোচ। তবে তিনি ভালভাবেই বুঝিয়ে দিলেন, বাইরের কোনও ঘটনা ডার্বিতে প্রভাব ফেলবে না। বলে দিলেন, “ডার্বির জন্য আমরা অনেকদিন থেকেই প্রস্তুতি নিচ্ছি। তাই এই ম্যাচে ফোকাস করাই এখন আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। আমরা খুব ভাল মেজাজে রয়েছি। সকলেই ম্যাচের জন্য তৈরি।” একই কথা শোনা গেল ফ্রান গঞ্জালেজের মুখেও। বললেন, “ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে খেলাটা নিঃসন্দেহে স্পেশ্যাল। কিন্তু দিনের শেষে তিন পয়েন্টটাই আসল। কাশ্মীর হোক বা গোকুলাম- আমাদের তিন পয়েন্টটাই দরকার। সমর্থকদের জন্য জিততে চাই। কালকের ম্যাচের জন্য আলাদা করে কোনও চাপ নেই।”

[আরও পড়ুন: কামব্যাকেই চ্যাম্পিয়ন, চিনা জুটিকে হারিয়ে হোবার্ট ইন্টারন্যাশনাল খেতাব জয় সানিয়ার]

MB-fan

জয়ের ধারা বজায় রেখে ডার্বির আগে লিগ তালিকার শীর্ষে মোহনবাগান। গোলের মধ্যে রয়েছেন ফ্রান গঞ্জালেজ। সবমিলিয়ে ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে আত্মবিশ্বাসে টগবগ করছে সবুজ-মেরুন শিবির। কিন্তু ফুটবলাররা যাতে অতিরিক্ত আত্মতুষ্টিতে না ভোগেন, সেদিকে কড়া নজর কোচ কিবু ভিকুনার। গত কয়েকটি ম্যাচে গোল করলেও গোল হজমও করতে হয়েছে বাগানকে। এই বিষয়টা চিন্তায় রাখছে ভিকুনাকে। বলছেন, ডিফেন্সটা আরও শক্তপক্ত করতে হবে। সেভাবেই প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। অ্যাটাকিং লাইনের দিকেও নজর রাখা হচ্ছে। তবে একটা বিষয়ে যে সুবিধা হয়েছে, অকপটেই স্বীকার করে নিয়েছেন ভিকুনা। তা হল ডার্বির দিনক্ষণ পিছিয়ে যাওয়া।

কোচের কথায়, “ডিসেম্বরে নির্ধারিত দিনে খেলা হলে দলে তিনজন বিদেশিকে পেতাম। এখন মোট পাঁচজন রয়েছে। তাছাড়া মাঝে অনেকগুলো ম্যাচ হয়ে গিয়েছে। ফলে প্রস্তুতিটাও ভালভাবে হয়েছে। তবে যখন যেমন পরিস্থিতি, সেই অনুযায়ী তৈরি থাকতে হয়।” ডার্বিতে ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রোর গ্রাফ বেশ ভাল। এমন পরিস্থিতিতে বড়ম্যাচে লাল-হলুদের শক্ত গাঁট খুলতে মরিয়া মোহনবাগান। এটিকের সঙ্গে বাগানের গাঁটছড়া বাঁধায় যে সমর্থকরা মনক্ষুণ্ণ হয়েছেন, ডার্বিতে জয় নিঃসন্দেহে তাঁদের মন ভাল করে দিতে পারবে।

[আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলে যোগ নয়া সহকারীর, ডার্বি জিতে সমর্থকদের ক্ষোভ মেটাতে চান আলেজান্দ্রো]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং