২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার: ৬ ম্যাচ খেলে পয়েন্ট ১১। লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে। বৃহস্পতিবার কল্যাণীতে এরিয়ানকে হারাতে পারলে ফের লিগ টেবিলের শীর্ষে চলে যাবে মোহনবাগান। যদিও এ নিয়ে ভাবতে রাজি নন মোহনবাগান কোচ কিবু ভিকুনা। বললেন, “কলকাতা লিগ রীতিমতো কঠিন। প্রত্যেকটা ম্যাচেই শক্তিশালী প্রতিপক্ষ।”

[আরও পড়ুন: রেফারি নিগ্রহে এক ম্যাচ সাসপেন্ড ডিকা-মেহতাব, লিগের দৌড়ে চাপে ইস্টবেঙ্গল]

লিগের শুরুটা ভাল না হলেও ডার্বির পর থেকে মোহনবাগানকে দেখাচ্ছে অন্যরকম। পরপর তিন ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছে সবুজ মেরুন।  বিদেশিরাও যেমন ফর্মে, তেমনি ফর্মে দেশীয় ফুটবলাররাও। আক্রমণভাগ নিয়ে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে না পারলেও বাগানের মিডফিল্ড নিঃসন্দেহে লিগের অন্যতম সেরা। স্বাভাবিকভাবেই এরিয়ানের বিরুদ্ধে নামার আগে খুব একটা চিন্তা থাকার কথা না মোহনবাগানের। জর্জ ম্যাচে দুরন্ত পারফরম্যান্সের পর মোহনবাগানে এখন ফুরফুরে মেজাজ। লিগ জিততে গেলে নিজেদের সবকটি ম্যাচ জিততে হবে। সেই সঙ্গে তাকিয়ে থাকতে হবে পিয়ারলেসের ফলাফলের দিকে। তবে, সেসব এখন ভাবতে নারাজ মোহনবাগান কোচ। 

[আরও পড়ুন: ‘অত্যন্ত গর্বিত’, কাতারকে আটকে ইতিহাস গড়া ভারতের প্রশংসায় সুনীল ছেত্রী]

 তবুও কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চান না কোচ কিবু ভিকুনা। কলকাতা লিগ চ্যাম্পিয়নশিপের ক্ষেত্রে ইস্টবেঙ্গল বা পিয়ারলেস নয়, নিজেদের দলকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন কিবু। বললেন, “মোহনবাগানের প্রতিপক্ষ মোহনবাগানই। তাই আমরা চ্যাম্পিয়ন হব কি না, সেটা আমাদের উপরেই নির্ভর করছে।” এদিন, ব্যক্তিগত কারণে প্র্যাকটিসে আসেননি গঞ্জালেস। তবে তিনি এরিয়ান ম্যাচ খেলবেন। ভিকুনা বললেন, “খেলাতে কোনও সমস্যা নেই।” প্রতিপক্ষ  সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানালেন যে, এরিয়ানের আফ্রিকান মিডফিল্ডার এবং ডিফেন্ডার বেশ ভাল। কল্যাণীতে ম্যাচ হওয়ায় সুবিধা হবে কী না প্রশ্ন করা হলে বললেন, “অবশ্যই ভাল মাঠে আমাদের খেলতে সুবিধা। কিন্তু শেষ ম্যাচে নিজেদের মাঠেও আমরা ভাল খেলেছি।” এদিকে, বুধবার শহরে চলে এলেন মোহনবাগানের ষষ্ঠ বিদেশি জুলেন কলিনাস।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং