২২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ৫ জুন ২০২০ 

Advertisement

বাগানের ট্রফি জয়ের আশা ক্ষীণ, রেনবোর বিরুদ্ধে সাইরাসকে খেলাতে পারেন কিবু

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 15, 2019 2:41 pm|    Updated: September 15, 2019 2:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত বৃহস্পতিবার এরিয়ানের কাছে হেরে ঘরোয়া লিগে ফের ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে মোহনবাগান। সেখানে নিজেদের গত ম্যাচে কালীঘাট এমএস-কে হারিয়ে ফের চ্যাম্পিয়নশিপ জমিয়ে দিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। এমন পরিস্থিতিতে রবিবার রেনবোর বিরুদ্ধে জয় ছাড়া আর কিছুই ভাবছেন না কিবু ভিকুনা। কারণ এখান থেকে ট্রফি জয়ের আশা অত্যন্ত ক্ষীণ। শুধু জিতলেই হবে না, অন্য দলগুলির ফলাফলের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে। আজ প্রথম ফ্লাডলাইটে খেলা হবে কল‌্যাণীতে।

[আরও পড়ুন: ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত বাগান ভক্তকে অর্থ সাহায্য লেবুতলা পার্ক পুজো কমিটির]

ম্যাচে নামার আগে হারের গ্লানি কাটাতে যতটা সম্ভব চনমনে থাকার চেষ্টায় সবুজ-মেরুন ফুটবলাররা। শনিবার ড্রেসিংরুম থেকে বেরতেই সমর্থকরা ঘিরে ধরেছিলেন দলের নয়া বিদেশি জুলেন কলিনাসকে। একটা সেলফি চাই। হাসিমুখে আবদার মিটিয়ে বেইতিয়ার সঙ্গে ক্যান্টিনে চলে যান তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যে সেখানে এলেন দুই ফ্রান (মোরান্তে আর গঞ্জালেজ)। খাওয়া-দাওয়ার মাঝে ছোটখাটো স্প্যানিশ আড্ডাও চলে বেশ খানিকক্ষণ। বেইতিয়ার সঙ্গে আগে খেলেছেন কলিনাস। এরিয়ানের বিরুদ্ধে মাঠে নামেননি। তবে কল্যাণীতে বসে বাগানের গত ম্যাচ দেখেছেন। এদিনও তাঁর খেলার সম্ভবনা ক্ষীণ। তবে দলের প্রথম দিনের প্র্যাকটিসে যে সব গোল করলেন, তাতে তাঁকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতেই পারেন সমর্থকরা।

[আরও পড়ুন: কেন ধোনিকে নিয়ে আবেগঘন পোস্ট করেছিলেন? অবশেষে মুখ খুললেন কোহলি]

কলিনাসকে না খেলালেও আরেক বিদেশি ড্যানিয়েল সাইরাসকে রেনবোর বিরুদ্ধে নামাতে পারেন কোচ কিবু। স্প্যানিশ কোচ বলছিলেন, “কুড়ি জনের দলে চারজন বিদেশি থাকবে। যার অর্থ একজনকে বাইরে থাকতে হবে। দেখি কী করি। তবে সাইরাস আর কলিনাসের ব্যাপারটা আলাদা। কলিনাস সবে প্র্যাকটিসে নামল। সাইরাস আগে এসেছিল। তারপর তো দেশের হয়ে খেলতে চলে গেল।” দলে যে পরিববর্তন আসছে, কিবুর কথায় তা অনেকটাই পরিষ্কার। তবে কম্বিনেশন কী হবে, সেটা স্পষ্ট নয়। রেনবো নিয়ে ভালভাবে হোমওয়ার্কও করেছেন। শুনেছেন কোচ বদলে নামছে তারা। তাই ভিকুনা সতর্ক। প্রতিপক্ষ লিগ তালিকায় নিচের দিকে থাকলেও কোনও ঝুঁকি নিতে চান না তিনি। বললেন, “লিগে প্রত্যেকটা ম্যাচ কঠিন। আমি ওদের খেলা দেখেছি। কয়েকজন ভাল ফুটবলার রয়েছে।” এরিয়ানের কাছে হারের পর লিগের জয়ের আশা কার্যত শেষ বলছেন কিবু। বলছিলেন, “শেষ চারটে ম্যাচে জিততে চাই। তাই বলে এখনই চার ম্যাচ নিয়ে ভাবছি না। এখন মাথায় শুধু রেনবো।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement