৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে তৈরি হয়ে গেল ভারতীয় ফুটবলের ভবিষ্যতের রোড ম্যাপ। ২০২৪-২৫ মরশুম থেকেই এদেশে একটিই লিগের অস্তিত্ব থাকবে। অর্থাৎ আর বছর পাঁচেক পরই ভারতে আর আলাদা করে আই লিগ ও আইএসএলের আসর বসবে না। সেই মরশুম থেকেই চালু হবে প্রোমোশন আর অবনমন।

আই লিগ এবং আইএসএল কি মিলে যাচ্ছে? নাকি আইএসএলই দেশের সেরা লিগের তকমা পাচ্ছে? এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছিল ফুটবল মহলে। এই বিষয়টি নিয়েই সোমবার মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে বৈঠকে বসেছিলেন ফেডারেশন এবং এএফসির কর্তারা। আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল আইএসএল ও আই লিগের ক্লাবগুলির প্রতিনিধিদেরও। ঠিক হয়েছে, এই মরশুম থেকে ২০২৪-২৫ মরশুম পর্যন্ত কার্যত আইএসএলই দেশের সেরা লিগ হিসেবে চিহ্নিত হবে। আর আই লিগকে ধাপে ধাপে আইএসএলের সঙ্গে মিলিয়ে দেওয়া হবে। একটি লিগ হয়ে যাওয়ার পর তাতে কটা দল খেলবে এবং তাদের নাম কী হবে, তা ঠিক করবে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন।

[আরও পড়ুন: বেশি সুনীল নির্ভরতা ভোগাতে পারে ভারতকে, কোয়ালিফায়ার নিয়ে সতর্ক বাইচুং]

নতুন রোডম্যাপ খানিকটা এরকম:

২০১৯-২০: এই মরশুমে আইএসএল অপরিবর্তিত থাকবে। থাকছে না কোনও প্রমোশন বা রেলিগেশনের নিয়মও।
২০২০-২১: প্রমোশন-রেলিগেশনের নিয়ম একই থাকছে। সেই সঙ্গে চলতি মরশুমের শেষের দিকে দুই আই লিগ ক্লাবকে আইএসএলের অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব দেওয়া হবে। তবে তাদের অবশ্যই ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি দিয়ে লিগে অংশ নিতে হবে।
২০২১-২০২২: বদলে যাবে আইএসএলের নাম। সেই সঙ্গে ফরম্যাটেও খানিকটা পরিবর্তন আসতে পারে। সেসব সিদ্ধান্ত নেবে এআইএফএফ।
২০২২-২০২৩: কোনও অবনমন হবে না। আই লিগ চ্যাম্পিয়নরা আইএসএলে প্রমোশন পাবে। সেক্ষেত্রে তাদের কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি দিতে হবে না। লাইসেন্সিং নিয়মাবলি পূরণ করলেই হবে।

[আরও পড়ুন: ‘বোর্ডের ভাবমূর্তি ঠিক করার এটাই সেরা সুযোগ’, প্রেসিডেন্ট পদ সামলাতে প্রস্তুত সৌরভ]

২০২৩-২০২৪: ২০২২-২০২৩ মরশুমের নিয়মই বজায় থাকবে।
২০২৪-২০২৫: গোটা দেশে একটি মাত্র লিগ থাকবে। একটি লিগ ও একটি নক আউট টুর্নামেন্ট থাকবে। সেই সঙ্গে প্রমোশন আর রেলিগেশন সবই থাকবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং